ঢাকা ০৮:৪১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে জেলা পরিষদের দায়িত্ব গ্রহন করেন মীর ইকবাল।

ফাইল ছবি।

বর্ণাঢ্য আয়োজন ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নবনির্মিত ম্যুরাল উদ্বোধন করে আনুষ্ঠানিক ভাবে দায়িত্ব গ্রহন করলেন রাজশাহী জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল।
মঙ্গলবার বেলা ১১টায় রাজশাহী জেলা পরিষদের প্রধান ফটকে প্রবেশ করলে জেলা মহানগর আওয়ামীলীগের শত শত নেতা-কর্মীগণ বরণ করে নেন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবালকে। এসময় তিনি নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীদের ভালোবাসা আমি কোন দিন ভ‚লবো না। আপনাদের অফুরন্ত ভালোবাসার কারণেই আমি আজ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি।
জেলা পরিষদের কার্যালয়ে প্রবেশের আগেই তিনি নেতা-কর্মীদের ও নবনির্বাচিত জেলা পরিষদের সদস্যদের নিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন করেন এবং বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন শেষ বিশেষ দোয়া মাহফিলে অংশ নেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন আয়েন, মাহনগর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ডাবলু সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর ইশতিয়াক আহমেদ লিমন. জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও বাগমারা উপজেলা চেয়ারম্যান অনিল কুমার ও সাধারণ সম্পাদক আবুল ওয়াদুদ দারা সহ বিভিন্ন উপজেলার চেয়ারম্যান সহ সর্বস্তরের মানুষ।
জেলা পরিষদের প্রথম সভায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল বলেন, আমি আজ জেলা পরিষদের দায়িত্ব নিলাম । আমি জানি না, জেলা পরিষদ কি আবস্থায় আছে। এটা আমার জানবার কথাও না। তুবও আমি বলছি, রাজশাহী জেলা পরিষদের পূর্বের কোন ভ‚ল ত্রæটি থেকে থাকে তা আমি দূর করবো। আমার পরিষদের সকল সদস্যদের নিয়ে নতুন করে জেলা পরিষদের পথ চলা শুরু করবো। জননেত্রী শেখ হাসিনা যে ভাবে বাংলাদেশে উন্নয়নের ধারা অব্যহত রেখেছেন তারই ধারাবাহিকতায় আমি রাজশাহী জেলা পরিষদের উন্নয়ন অব্যহত রাখবো এবং সেই সাথে জেলা পরিষদকে গতিশীল করে তুলবো। পরিশেষে তিনি বলেন, আমার সদস্যদের আমি যেন সব সময় পাশে পাই। তাহলেই আমি রাজশাহী জেলা পরিষদের চিত্র একেবার বদলে দিব। প্রথম সভায় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেজা হাসান সহ নবনির্বাচিত সদস্যবৃন্দ।

 

আপলোডকারীর তথ্য

Daily Naba Bani

মিডিয়া তালিকাভুক্ত জাতীয় দৈনিক নববাণী পত্রিকার জন্য সকল জেলা উপজেলায় সংবাদ কর্মী আবশ্যকঃ- আগ্রহীরা আজই আবেদন করুন। মেইল: 24nababani@gmail.com
জনপ্রিয় সংবাদ

দলীয় নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের সাথে রাসিক মেয়রের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে জেলা পরিষদের দায়িত্ব গ্রহন করেন মীর ইকবাল।

আপডেট সময় ০৬:৪৮:৩৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ নভেম্বর ২০২২

বর্ণাঢ্য আয়োজন ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নবনির্মিত ম্যুরাল উদ্বোধন করে আনুষ্ঠানিক ভাবে দায়িত্ব গ্রহন করলেন রাজশাহী জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল।
মঙ্গলবার বেলা ১১টায় রাজশাহী জেলা পরিষদের প্রধান ফটকে প্রবেশ করলে জেলা মহানগর আওয়ামীলীগের শত শত নেতা-কর্মীগণ বরণ করে নেন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবালকে। এসময় তিনি নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীদের ভালোবাসা আমি কোন দিন ভ‚লবো না। আপনাদের অফুরন্ত ভালোবাসার কারণেই আমি আজ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি।
জেলা পরিষদের কার্যালয়ে প্রবেশের আগেই তিনি নেতা-কর্মীদের ও নবনির্বাচিত জেলা পরিষদের সদস্যদের নিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন করেন এবং বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন শেষ বিশেষ দোয়া মাহফিলে অংশ নেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন আয়েন, মাহনগর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ডাবলু সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর ইশতিয়াক আহমেদ লিমন. জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও বাগমারা উপজেলা চেয়ারম্যান অনিল কুমার ও সাধারণ সম্পাদক আবুল ওয়াদুদ দারা সহ বিভিন্ন উপজেলার চেয়ারম্যান সহ সর্বস্তরের মানুষ।
জেলা পরিষদের প্রথম সভায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল বলেন, আমি আজ জেলা পরিষদের দায়িত্ব নিলাম । আমি জানি না, জেলা পরিষদ কি আবস্থায় আছে। এটা আমার জানবার কথাও না। তুবও আমি বলছি, রাজশাহী জেলা পরিষদের পূর্বের কোন ভ‚ল ত্রæটি থেকে থাকে তা আমি দূর করবো। আমার পরিষদের সকল সদস্যদের নিয়ে নতুন করে জেলা পরিষদের পথ চলা শুরু করবো। জননেত্রী শেখ হাসিনা যে ভাবে বাংলাদেশে উন্নয়নের ধারা অব্যহত রেখেছেন তারই ধারাবাহিকতায় আমি রাজশাহী জেলা পরিষদের উন্নয়ন অব্যহত রাখবো এবং সেই সাথে জেলা পরিষদকে গতিশীল করে তুলবো। পরিশেষে তিনি বলেন, আমার সদস্যদের আমি যেন সব সময় পাশে পাই। তাহলেই আমি রাজশাহী জেলা পরিষদের চিত্র একেবার বদলে দিব। প্রথম সভায় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেজা হাসান সহ নবনির্বাচিত সদস্যবৃন্দ।