ঢাকা ০১:৩৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখা এবং গুজব প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা সভা

ফাইল ছবি।

আজ রবিবার (১২ জুন) রাজশাহী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখা এবং গুজব প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা আয়োজন করে রাজশাহী জেলা তথ্য অফিস।

অনুষ্ঠানে পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, বিপিএম(বার) বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। জেলা তথ্য অফিসের পরিচালক মোহাঃ ফরহাদ হোসেন সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন।
সভায় বক্তাগণ বলেন, দেশের উন্নয়নকে তরান্বিত করতে আমাদের আরও দায়িত্বশীল হতে হবে। জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। আবহমান কাল থেকে বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ উল্লেখ করে তাঁরা বলেন, উন্নয়নের স্বার্থে যে কোনো অপপ্রচারকে প্রতিহত করতে অসা¤প্রদায়িক চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে আমাদের একতাবদ্ধ থাকতে হবে। যে কোনো ধরনের গুজব, মিথ্যাচার, অপরাজনীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে।
তাঁরা বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার দৃঢ়, বলিষ্ঠ ও দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে বাংলাদেশ অনেক বাধা-বিঘ্ন অতিক্রম করে সামনে এগিয়ে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করা হবে আগামী ২৫ জুন।
তথ্য প্রযুক্তির যুগে প্রত্যেকেরই নিজ নিজ অবস্থান থেকে সাম্প্রদায়িকতা, গুজব ও অপপ্রচার রুখতে আরও বেশি সজাগ ও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনে বক্তাগণ সকলের প্রতি আহবান জানান।
আলোচনা সভায় জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের দপ্তর প্রধান এবং গণমাধ্যম প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

জনপ্রিয় সংবাদ

মোহনপুর উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আল মোমেন শাহ  গাবরুর নির্বাচনীয় বিশাল জনসভা অনুষ্ঠিত হয় 

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখা এবং গুজব প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা সভা

আপডেট সময় ০৭:৪৭:০৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ জুন ২০২২

আজ রবিবার (১২ জুন) রাজশাহী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখা এবং গুজব প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা আয়োজন করে রাজশাহী জেলা তথ্য অফিস।

অনুষ্ঠানে পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, বিপিএম(বার) বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। জেলা তথ্য অফিসের পরিচালক মোহাঃ ফরহাদ হোসেন সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন।
সভায় বক্তাগণ বলেন, দেশের উন্নয়নকে তরান্বিত করতে আমাদের আরও দায়িত্বশীল হতে হবে। জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। আবহমান কাল থেকে বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ উল্লেখ করে তাঁরা বলেন, উন্নয়নের স্বার্থে যে কোনো অপপ্রচারকে প্রতিহত করতে অসা¤প্রদায়িক চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে আমাদের একতাবদ্ধ থাকতে হবে। যে কোনো ধরনের গুজব, মিথ্যাচার, অপরাজনীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে।
তাঁরা বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার দৃঢ়, বলিষ্ঠ ও দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে বাংলাদেশ অনেক বাধা-বিঘ্ন অতিক্রম করে সামনে এগিয়ে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করা হবে আগামী ২৫ জুন।
তথ্য প্রযুক্তির যুগে প্রত্যেকেরই নিজ নিজ অবস্থান থেকে সাম্প্রদায়িকতা, গুজব ও অপপ্রচার রুখতে আরও বেশি সজাগ ও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনে বক্তাগণ সকলের প্রতি আহবান জানান।
আলোচনা সভায় জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের দপ্তর প্রধান এবং গণমাধ্যম প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।