ঢাকা ০৭:৪৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
এ বিষয়ে অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাজশাহী সময়‘র সম্পাদক মাসুদ রানা রাব্বানী বলেন, দুখু ও মিলনের নেতৃত্বে আমাদের অফিসে হামলা-ভাঙচুর চালানো হয়।

সংবাদ প্রকাশের জেরে রাজশাহীতে পত্রিকা অফিসে ঢুকে হামলা চালিয়েছে মাদক কারবারিরা। 

ফাইল ছবি

শুক্রবার (৫ মে) রাত ৮টার দিকে নগরীর কাজলা অক্ট্রয় মোড় এলাকায় সাপ্তাহিক ‘বাংলার বিবেক’ ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘রাজশাহীর সময়’ অফিসে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় তারা অফিসের সিসি ক্যামেরা, দুটি কম্পিউটার ও একটি ডিএসএলআর ক্যামেরা ভাঙচুর করে হার্ডডিস্ক নিয়ে পালিয়ে যায়। তবে রাত ৩টার দিকে ঘটনার মূলহোতা আসাদুল হক দুখুকে গ্রেপ্তার করে আরএমপির বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ। পরে তাকে মতিহার থানায় হস্তান্তর করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃত আসাদুল নগরীর কাজলা এলাকার আবু তাহেরের ছেলে। তিনি চিহ্নিত মাদকসেবী। মাদক সিন্ডিকেটের সঙ্গে বেশ সখ্যতা রয়েছে তার। বিভিন্ন অফিসে চাঁদাবাজির সঙ্গেও জড়িত তিনি। সম্প্রতি নিজেকে জেলা কৃষকলীগের নেতা দাবি করে বেপরোয়া হয়ে ওঠেন এ মাদকসেবী। ইতোপূর্বে তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ উঠলেও সবশেষ পত্রিকা অফিসে হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার হলেন। মতিহার থানার ৪ নম্বর এ মামলায় আসাদুল হক দুখুই প্রধান আসামী। শনিবার (৬ মে) তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।
এ বিষয়ে অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাজশাহী সময়‘র সম্পাদক মাসুদ রানা রাব্বানী বলেন, দুখু ও মিলনের নেতৃত্বে আমাদের অফিসে হামলা-ভাঙচুর চালানো হয়। তারা অফিসের ড্রয়ারে থাকা প্রায় ৯৭ হাজার টাকা লুট করে। এ সময় নারী সাংবাদিকসহ চারজন সাংবাদিককে মারধর করে তারা। এছাড়া আমাদের এক ফটোসাংবাদিককে জোর করে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ছেড়ে দেয়। মাদক কারবারিরা আমাদেরকেও হত্যার হুমকি দিয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করেছি।
এ ব্যাপারে আরএমপির মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রুহুল আমীন বলেন, পত্রিকা অফিসে মাদক কারবারীদের হামলা, ভাঙ্গচুর, লুটপাট ও অপহরণ চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের হয়েছে থানায়। এ ঘটনায় প্রধান আসামী দুখুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

পিবিআই রাজশাহীতে মামলা তদন্ত ও প্রতিবেদন দাখিল ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত

এ বিষয়ে অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাজশাহী সময়‘র সম্পাদক মাসুদ রানা রাব্বানী বলেন, দুখু ও মিলনের নেতৃত্বে আমাদের অফিসে হামলা-ভাঙচুর চালানো হয়।

সংবাদ প্রকাশের জেরে রাজশাহীতে পত্রিকা অফিসে ঢুকে হামলা চালিয়েছে মাদক কারবারিরা। 

আপডেট সময় ০৮:৩৭:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ মে ২০২৩
শুক্রবার (৫ মে) রাত ৮টার দিকে নগরীর কাজলা অক্ট্রয় মোড় এলাকায় সাপ্তাহিক ‘বাংলার বিবেক’ ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘রাজশাহীর সময়’ অফিসে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় তারা অফিসের সিসি ক্যামেরা, দুটি কম্পিউটার ও একটি ডিএসএলআর ক্যামেরা ভাঙচুর করে হার্ডডিস্ক নিয়ে পালিয়ে যায়। তবে রাত ৩টার দিকে ঘটনার মূলহোতা আসাদুল হক দুখুকে গ্রেপ্তার করে আরএমপির বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ। পরে তাকে মতিহার থানায় হস্তান্তর করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃত আসাদুল নগরীর কাজলা এলাকার আবু তাহেরের ছেলে। তিনি চিহ্নিত মাদকসেবী। মাদক সিন্ডিকেটের সঙ্গে বেশ সখ্যতা রয়েছে তার। বিভিন্ন অফিসে চাঁদাবাজির সঙ্গেও জড়িত তিনি। সম্প্রতি নিজেকে জেলা কৃষকলীগের নেতা দাবি করে বেপরোয়া হয়ে ওঠেন এ মাদকসেবী। ইতোপূর্বে তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ উঠলেও সবশেষ পত্রিকা অফিসে হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার হলেন। মতিহার থানার ৪ নম্বর এ মামলায় আসাদুল হক দুখুই প্রধান আসামী। শনিবার (৬ মে) তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।
এ বিষয়ে অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাজশাহী সময়‘র সম্পাদক মাসুদ রানা রাব্বানী বলেন, দুখু ও মিলনের নেতৃত্বে আমাদের অফিসে হামলা-ভাঙচুর চালানো হয়। তারা অফিসের ড্রয়ারে থাকা প্রায় ৯৭ হাজার টাকা লুট করে। এ সময় নারী সাংবাদিকসহ চারজন সাংবাদিককে মারধর করে তারা। এছাড়া আমাদের এক ফটোসাংবাদিককে জোর করে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ছেড়ে দেয়। মাদক কারবারিরা আমাদেরকেও হত্যার হুমকি দিয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করেছি।
এ ব্যাপারে আরএমপির মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রুহুল আমীন বলেন, পত্রিকা অফিসে মাদক কারবারীদের হামলা, ভাঙ্গচুর, লুটপাট ও অপহরণ চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের হয়েছে থানায়। এ ঘটনায় প্রধান আসামী দুখুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।