ঢাকা ০৫:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪, ৩১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শীত আসার আগে রাজশাহীতে বিক্রি হচ্ছে শীতবস্ত্র

শীতবস্ত্র

শীত আসার আগে নগর জুড়ে বিক্রি হচ্ছে শীত বস্ত্র। ইতোমধ্যেই জমে উঠেছে ফুটপাতের দোকানগুলি।
নগরের অভিজাত দোকানগুলোর সাথে সাথে ফুটপাতেও জমেছে মানুষের ঢল। আগের তুলনায় ফুটপাতের দোকানগুলি এখন হয়েছে পরিপাটি।

উচ্চবিত্ত থেকে নিম্নবিত্ত সবাই যেন ফুটপাতের দোকানের উপর নির্ভরশীল। নগরীর বাটার মোড় , রানী বাজার , আরডিএ মার্কেট এই জায়গাগুলোতে সন্ধ্যার পর দোকানগুলো জমজমাট দেখা যাচ্ছে। বিশেষ করে সন্ধ্যার আগে ও পরে দোকান গুলোতে ক্রেতাদের ভীড় লক্ষ করা যাচ্ছে। তুলনা মূলক কমদামে বস্ত্র কিনে স্বস্থি প্রকাশ করছেন ক্রেতারা।

শীতবস্ত্র হিসেবে কম্বল,সোয়েটার মোজা ,মাফলার ইত্যাদি কিনছেন সকলেই। ৫০ থেকে ২০০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে মোজা, মাফলার। ৩০০ থেকে ৫০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে গরম কাপড়। পাশাপাশি বিক্রি হচ্ছে কমফোটার।

আরডিএ মার্কেটের ব্যবসায়ী সেলিম জানান ফ্যামিলি সাইজ কমফোটার গুলো বিক্রি হচ্ছে ২৫০০ থেকে ৩০০০ টাকার মধ্যে।
শিউলি নামে এক ক্রেতা বলেন লেপ কম্বল ধোয়ার ঝামেলার থেকে কমফোটার ব্যবহার করা সুবিধা বলে আমার মনে হয়।
কম্বল কিনতে আসা ক্রেতা রতন বলেন, শেষ রাতে শীত অনুভূত হচ্ছে। বাজারে দেখছি অগ্রীম শীতের কম্বলসহ অন্যান্য বস্ত্র বিক্রি হচ্ছে। নিজেদের ঘরে কম্বল প্রয়োজন তাই কম্বল ক্রয়ের জন্য এসেছি।

এদিকে শীতের মার্কেট জমজমাট করে বিক্রেতারা বেশি মুনাফা লাভের আশায় শীতের আগমনকেই সুবর্ণ সময় মনে করেছেন।

আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

রাজশাহীতে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ শীর্ষক আলোচনা সভা

শীত আসার আগে রাজশাহীতে বিক্রি হচ্ছে শীতবস্ত্র

আপডেট সময় ০২:০২:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০২৩

শীত আসার আগে নগর জুড়ে বিক্রি হচ্ছে শীত বস্ত্র। ইতোমধ্যেই জমে উঠেছে ফুটপাতের দোকানগুলি।
নগরের অভিজাত দোকানগুলোর সাথে সাথে ফুটপাতেও জমেছে মানুষের ঢল। আগের তুলনায় ফুটপাতের দোকানগুলি এখন হয়েছে পরিপাটি।

উচ্চবিত্ত থেকে নিম্নবিত্ত সবাই যেন ফুটপাতের দোকানের উপর নির্ভরশীল। নগরীর বাটার মোড় , রানী বাজার , আরডিএ মার্কেট এই জায়গাগুলোতে সন্ধ্যার পর দোকানগুলো জমজমাট দেখা যাচ্ছে। বিশেষ করে সন্ধ্যার আগে ও পরে দোকান গুলোতে ক্রেতাদের ভীড় লক্ষ করা যাচ্ছে। তুলনা মূলক কমদামে বস্ত্র কিনে স্বস্থি প্রকাশ করছেন ক্রেতারা।

শীতবস্ত্র হিসেবে কম্বল,সোয়েটার মোজা ,মাফলার ইত্যাদি কিনছেন সকলেই। ৫০ থেকে ২০০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে মোজা, মাফলার। ৩০০ থেকে ৫০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে গরম কাপড়। পাশাপাশি বিক্রি হচ্ছে কমফোটার।

আরডিএ মার্কেটের ব্যবসায়ী সেলিম জানান ফ্যামিলি সাইজ কমফোটার গুলো বিক্রি হচ্ছে ২৫০০ থেকে ৩০০০ টাকার মধ্যে।
শিউলি নামে এক ক্রেতা বলেন লেপ কম্বল ধোয়ার ঝামেলার থেকে কমফোটার ব্যবহার করা সুবিধা বলে আমার মনে হয়।
কম্বল কিনতে আসা ক্রেতা রতন বলেন, শেষ রাতে শীত অনুভূত হচ্ছে। বাজারে দেখছি অগ্রীম শীতের কম্বলসহ অন্যান্য বস্ত্র বিক্রি হচ্ছে। নিজেদের ঘরে কম্বল প্রয়োজন তাই কম্বল ক্রয়ের জন্য এসেছি।

এদিকে শীতের মার্কেট জমজমাট করে বিক্রেতারা বেশি মুনাফা লাভের আশায় শীতের আগমনকেই সুবর্ণ সময় মনে করেছেন।