ঢাকা ০৬:৩৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
রাজশাহী সত্যিকার অর্থে ক্লিন সিটি, গ্রিন সিটি। রাজশাহী নগরীর সুনাম এখন দেশজুড়ে।

রাজশাহী নগরীর পরিচ্ছন্নতা ও সৌন্দর্য্যে মুগ্ধ বিভিন্ন সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভার কাউন্সিলর-কর্মকর্তারা

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় ১১:৪২:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • ১৩০ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ছবি।

রাজশাহী মহানগরীর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা, সবুজায়ন ও সৌন্দর্য্যরে ভূয়সী প্রশংসা করেছেন রাজশাহীতে আগত বিভিন্ন সিটি কর্পোরেশন ও পৌর সভার প্যানেল মেয়র, কাউন্সিলর, কর্মকর্তাবৃন্দ। রোববার রাত ৮টায় নগর ভবনের সিটি হল সভাকক্ষে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের সাথে এক মতবিনিময় সভায় তারা এই প্রশংসা করেন। সভায় রাজশাহী মহানগরীর পরিচ্ছন্নতা ও সৌন্দর্য্যরে মুগ্ধতার কথা জানান তারা।

উল্লেখ্য, ইউএসএআইডি লোকাল হেল্থ সিস্টেম সাসটেইনেবিলিটি (এলএইচএসএস) প্রকল্পের ২দিন ব্যাপী পিয়ার লার্নিং কর্মশালায় অংশ নিতে রাজশাহীতে এসেছেন চট্ট্রগ্রাম ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন ও ১১টি পৌরসভার কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ। রবিবার হোটেল-এক্স হল রুমে প্রথম দিনের কর্মশালায় অংশ নেন তারা। এরপর রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের আমন্ত্রণে নগর ভবনে আসেন তারা।
মতবিনিময় সভায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র গিয়াস উদ্দিন বলেন, যোগ্য পিতার যোগ্য সন্তান মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। তিনি রাজশাহীকে বদলে দিয়েছেন। রাজশাহী নগরীর সুনাম এখন দেশজুড়ে।

কক্সবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাহানা আকতার বলেন, রাজশাহীর পরিবেশ এতো সুন্দর, এতো পরিচ্ছন্ন ও ঝকঝকে শহর। আগে শুধু শুনেছি রাজশাহীর কথা, আজকে নিজে এসে দেখলাম। সত্যিই অনেক পরিচ্ছন্ন ও সুন্দর শহর রাজশাহী।
মৌলভীবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র নাহিদ হোসেন বলেন, রাজশাহীতে সত্যিকার অর্থে ক্লিন সিটি, গ্রিন সিটি। দেশের অন্যান্য সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভাগুলো রাজশাহীকে দেখে অভিজ্ঞতা নিতে পারে। রাজশাহীর এই অভিজ্ঞতা দেশজুড়ে ছড়িয়ে যাক-এটি আমরা চাই।
বগুড়া পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, একজন মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন রাজশাহীকে বদলে দিয়েছেন। রাজশাহীর এই বদলে যাওয়াতে সবাই মুগ্ধ।রাসিকের স্বাস্থ্য বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. নূরুজামান টুকুর সভাপতিতে অনুষ্ঠিত সভায় সভামঞ্চে উপস্থিত ছিলেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, প্যানেল মেয়র-২ও ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম, সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র মো: তৌফিক বক্স। সভায় রাসিকের ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন, ১৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাসেল জামান, ১৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম সহ বিভিন্ন সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভার কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।#

আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

রাজশাহীর গোদাগাড়ী বালু মহলের অনিয়মবন্ধে ও দুর্নীতি বন্ধে ডিসি বরাবর অভিযোগ

রাজশাহী সত্যিকার অর্থে ক্লিন সিটি, গ্রিন সিটি। রাজশাহী নগরীর সুনাম এখন দেশজুড়ে।

রাজশাহী নগরীর পরিচ্ছন্নতা ও সৌন্দর্য্যে মুগ্ধ বিভিন্ন সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভার কাউন্সিলর-কর্মকর্তারা

আপডেট সময় ১১:৪২:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

রাজশাহী মহানগরীর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা, সবুজায়ন ও সৌন্দর্য্যরে ভূয়সী প্রশংসা করেছেন রাজশাহীতে আগত বিভিন্ন সিটি কর্পোরেশন ও পৌর সভার প্যানেল মেয়র, কাউন্সিলর, কর্মকর্তাবৃন্দ। রোববার রাত ৮টায় নগর ভবনের সিটি হল সভাকক্ষে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের সাথে এক মতবিনিময় সভায় তারা এই প্রশংসা করেন। সভায় রাজশাহী মহানগরীর পরিচ্ছন্নতা ও সৌন্দর্য্যরে মুগ্ধতার কথা জানান তারা।

উল্লেখ্য, ইউএসএআইডি লোকাল হেল্থ সিস্টেম সাসটেইনেবিলিটি (এলএইচএসএস) প্রকল্পের ২দিন ব্যাপী পিয়ার লার্নিং কর্মশালায় অংশ নিতে রাজশাহীতে এসেছেন চট্ট্রগ্রাম ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন ও ১১টি পৌরসভার কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ। রবিবার হোটেল-এক্স হল রুমে প্রথম দিনের কর্মশালায় অংশ নেন তারা। এরপর রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের আমন্ত্রণে নগর ভবনে আসেন তারা।
মতবিনিময় সভায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র গিয়াস উদ্দিন বলেন, যোগ্য পিতার যোগ্য সন্তান মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। তিনি রাজশাহীকে বদলে দিয়েছেন। রাজশাহী নগরীর সুনাম এখন দেশজুড়ে।

কক্সবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাহানা আকতার বলেন, রাজশাহীর পরিবেশ এতো সুন্দর, এতো পরিচ্ছন্ন ও ঝকঝকে শহর। আগে শুধু শুনেছি রাজশাহীর কথা, আজকে নিজে এসে দেখলাম। সত্যিই অনেক পরিচ্ছন্ন ও সুন্দর শহর রাজশাহী।
মৌলভীবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র নাহিদ হোসেন বলেন, রাজশাহীতে সত্যিকার অর্থে ক্লিন সিটি, গ্রিন সিটি। দেশের অন্যান্য সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভাগুলো রাজশাহীকে দেখে অভিজ্ঞতা নিতে পারে। রাজশাহীর এই অভিজ্ঞতা দেশজুড়ে ছড়িয়ে যাক-এটি আমরা চাই।
বগুড়া পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, একজন মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন রাজশাহীকে বদলে দিয়েছেন। রাজশাহীর এই বদলে যাওয়াতে সবাই মুগ্ধ।রাসিকের স্বাস্থ্য বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. নূরুজামান টুকুর সভাপতিতে অনুষ্ঠিত সভায় সভামঞ্চে উপস্থিত ছিলেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, প্যানেল মেয়র-২ও ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম, সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র মো: তৌফিক বক্স। সভায় রাসিকের ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন, ১৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাসেল জামান, ১৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম সহ বিভিন্ন সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভার কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।#