ঢাকা ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে সন্ত্রাস ও নাশকতায় অর্থায়নের অভিযোগে ব্যবসায়ী আটক

শরিফুল ইসলাম বিশু (৪০)

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে বিএনপি জামায়াতের সন্ত্রাস ও নাশকতায় অর্থায়নের অভিযোগে শরিফুল ইসলাম বিশু (৪০) নামে এক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গোদাগাড়ী পৌর এলাকার সুলতানগঞ্জের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে শরিফুল ইসলাম বিশু স্থানীয় যুবদলের রাজনাতির সঙ্গে জড়িত। সে বিএনপি ও জামায়াতকে অর্থ দেয়ার পাশাপাশি সন্ত্রাস ও নাশকতায় অংশ নেয়।

গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিষার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল মতিন বলেন, মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) রাতে শরিফুল ইসলাম বিশুকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাস ও নাশকতার অভিযোগ মামলা দায়ের হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, স্যার ও কীটনাশক ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলাম বিশু পুকুর সিন্ডিকেটের সঙ্গে জড়িত থেকে কোটি কোটি টাকা আয় করেছে। স্থানীয় যুবদলের নেতা হলেও আওয়ামী লীগের উপজেলা পর্যায়ে কয়েকজন নেতার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রেখে পুকুর টেন্ডার জালিয়াতি করে আসছিল বলেও অভিযোগ করেন স্থানীয়রা।

আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

রাজশাহীতে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ শীর্ষক আলোচনা সভা

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে সন্ত্রাস ও নাশকতায় অর্থায়নের অভিযোগে ব্যবসায়ী আটক

আপডেট সময় ০৭:০০:৪৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০২৩

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে বিএনপি জামায়াতের সন্ত্রাস ও নাশকতায় অর্থায়নের অভিযোগে শরিফুল ইসলাম বিশু (৪০) নামে এক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গোদাগাড়ী পৌর এলাকার সুলতানগঞ্জের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে শরিফুল ইসলাম বিশু স্থানীয় যুবদলের রাজনাতির সঙ্গে জড়িত। সে বিএনপি ও জামায়াতকে অর্থ দেয়ার পাশাপাশি সন্ত্রাস ও নাশকতায় অংশ নেয়।

গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিষার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল মতিন বলেন, মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) রাতে শরিফুল ইসলাম বিশুকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাস ও নাশকতার অভিযোগ মামলা দায়ের হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, স্যার ও কীটনাশক ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলাম বিশু পুকুর সিন্ডিকেটের সঙ্গে জড়িত থেকে কোটি কোটি টাকা আয় করেছে। স্থানীয় যুবদলের নেতা হলেও আওয়ামী লীগের উপজেলা পর্যায়ে কয়েকজন নেতার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রেখে পুকুর টেন্ডার জালিয়াতি করে আসছিল বলেও অভিযোগ করেন স্থানীয়রা।