ঢাকা ০৪:২৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীতে নাশকতার অভিযোগে গ্রেপ্তার ৭৬, পুলিশের গাড়ীতে আগুন

রাজশাহীর বাঘায় বিএনপি-জামায়াতের ডাকা হরতালে

রাজশাহীতে হরতালের আগে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের ৭৬ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে রাজশাহী মহানগর পুলিশই (আরএমপি) গ্রেপ্তার করেছে ৭০ জনকে। অন্য ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা পুলিশ।
আরএমপি কমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার জানান, হরতাল ঘিরে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের ৭০ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে আরএমপির বিভিন্ন থানা পুলিশ। শনিবার রাতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া  শেষে দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
এদিকে রাজশাহী জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) সাইফুর রহমান জানান, রাতে চারঘাট উপজেলায় নাশকতার পরিকল্পনা করার সময় বিএনপির ছয় নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ শেষে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে বলেওজানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।
এদিকে রোববার সকাল থেকে সারা দেশে শুরু হয়েছে বিএনপির সকাল-সন্ধ্যা হরতাল। তবে রাজশাহীতে এর তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি।
তবে হরতালে মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দিতে শহরের ১২টি পয়েন্টে অবস্থান নিয়েছেন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে পুলিশ সদস্যদেরও সতর্ক অবস্থানে দেখা গেছে।
পুলিশের গাড়ীতে আগুন:-
রাজশাহীর বাঘায় বিএনপি-জামায়াতের ডাকা হরতালে একটি প্রাইভেটকারে আগুন দিয়েছে হরতাল সমর্থকরা। রোববার (২৯ অক্টোবর) বেলা পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার মনিগ্রাম ইউনিয়নের আটঘরিয়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এতে কেউ হতাহত না হলেও গাড়িটি সম্পূর্ণ ভস্মিভূত হয়ে গেছে।
রাজশাহী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল আলম এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) সদস্য মো. রিপন ছুটিতে পরিবারে সদস্যদের নিয়ে এক আত্মীয়ের বাড়িতে প্রাইভেটকারে করে বেড়াতে যাচ্ছিলেন।তিনি
বাঘা উপজেলার মনিগ্রাম ইউনিয়নের আটঘরিয়া এলাকায় পৌঁছালে প্রাইভেট কারের গতিরোধ করে তাদের  নামিয়ে দিয়ে প্রাইভেটকারটিতে আগুন দিয়ে পালিয়ে যান তারা। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গিয়ে আগুন নেভান। তবে  আগেই গাড়িটি সম্পূর্ণ ভস্মিভূত হলেই কেউ হতাহত হয়নি।
 এই ঘটনায় বাঘা থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে – ডেপুটি স্পীকার

রাজশাহীতে নাশকতার অভিযোগে গ্রেপ্তার ৭৬, পুলিশের গাড়ীতে আগুন

আপডেট সময় ০৪:০৯:২৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২৩
রাজশাহীতে হরতালের আগে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের ৭৬ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে রাজশাহী মহানগর পুলিশই (আরএমপি) গ্রেপ্তার করেছে ৭০ জনকে। অন্য ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা পুলিশ।
আরএমপি কমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার জানান, হরতাল ঘিরে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের ৭০ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে আরএমপির বিভিন্ন থানা পুলিশ। শনিবার রাতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া  শেষে দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
এদিকে রাজশাহী জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) সাইফুর রহমান জানান, রাতে চারঘাট উপজেলায় নাশকতার পরিকল্পনা করার সময় বিএনপির ছয় নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ শেষে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে বলেওজানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।
এদিকে রোববার সকাল থেকে সারা দেশে শুরু হয়েছে বিএনপির সকাল-সন্ধ্যা হরতাল। তবে রাজশাহীতে এর তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি।
তবে হরতালে মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দিতে শহরের ১২টি পয়েন্টে অবস্থান নিয়েছেন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে পুলিশ সদস্যদেরও সতর্ক অবস্থানে দেখা গেছে।
পুলিশের গাড়ীতে আগুন:-
রাজশাহীর বাঘায় বিএনপি-জামায়াতের ডাকা হরতালে একটি প্রাইভেটকারে আগুন দিয়েছে হরতাল সমর্থকরা। রোববার (২৯ অক্টোবর) বেলা পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার মনিগ্রাম ইউনিয়নের আটঘরিয়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এতে কেউ হতাহত না হলেও গাড়িটি সম্পূর্ণ ভস্মিভূত হয়ে গেছে।
রাজশাহী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল আলম এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) সদস্য মো. রিপন ছুটিতে পরিবারে সদস্যদের নিয়ে এক আত্মীয়ের বাড়িতে প্রাইভেটকারে করে বেড়াতে যাচ্ছিলেন।তিনি
বাঘা উপজেলার মনিগ্রাম ইউনিয়নের আটঘরিয়া এলাকায় পৌঁছালে প্রাইভেট কারের গতিরোধ করে তাদের  নামিয়ে দিয়ে প্রাইভেটকারটিতে আগুন দিয়ে পালিয়ে যান তারা। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গিয়ে আগুন নেভান। তবে  আগেই গাড়িটি সম্পূর্ণ ভস্মিভূত হলেই কেউ হতাহত হয়নি।
 এই ঘটনায় বাঘা থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।