ঢাকা ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীতে দুই চিকিৎসকের খূনের রহস্যের অন্ধকারে  পুলিশ

এখনও কোনো রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ

রাজশাহীতে একরাতেই দুই চিকিৎসক খুনের ঘটনার ৬দিন পার হলেও এখনও কোনো রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ। দুই খুনের ঘটনায় মামলা হলেও আসামি গ্রেপ্তার হয়নি। কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা নিয়ে অন্ধকারে রয়েছে পুলিশ। তবে পুলিশ বলছে, তদন্ত চলছে। রহস্য উদঘাটন হবে।
এদিকে, রাজশাহীর ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের ডা. কাজেমের খুনিদের ধরতে ফের কর্মসূচি দিয়েছে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)। খুনিরা গ্রেপ্তার না হওয়ায় সংগঠনটি নতুন কর্মসূচি দিয়েছে। কর্মসূচি অনুযায়ী ৪ ও ৫ অক্টোবর শনিবার ও  রোববার বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত এক ঘণ্টা করে কর্মবিরতি পালন করবেন চিকিৎসকেরা। এই একঘণ্টা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে সমাবেশ হবে। এর আগে আসামীদের ধরতে ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছিলো।
বিএমএ রাজশাহীর সভাপতি ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নওশাদ আলী বলেন, ‘আমরা আরএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করে খুনিদের ধরতে একটা সময়সীমা দিয়েছিলাম। সেটা বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে। এ জন্য আমাদের নতুন কর্মসূচি দিতে হয়েছে। দুই দিন একঘণ্টা করে কর্মবিরতি পালন করা হবে। এরপরও তদন্তের অগ্রগতি না হলে আরও কঠোর কর্মসূচি আসতে পারে।
রাজশাহী নগর পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার জামিরুল ইসলাম বলেন, ‘দুই খুনের ঘটনায় পুলিশ তদন্ত কার্যক্রম চালাচ্ছে। এখনও পর্যন্ত বলার মতো অগ্রগতি নেই। তবে অচিরেই দুই খুনের রহস্য উদঘাটন হবে। খুনিরাও ধরা পড়বে।
গত ২৯ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আরএমপির চন্দ্রিমা থানার কৃষ্টগঞ্জ বাজারের পল্লি চিকিৎসক এরশাদ আলী দুলালকে তুলে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। রাত ৯টার দিকে নগরীর সিটিহাট এলাকায় রাস্তার পাশে তার রক্তাক্ত লাশ পাওয়া যায়। এরপর রাত পৌনে ১২টার দিকে চেম্বার শেষ করে ফেরার পথে নগরীর বর্নালী খুন হন যৌন ও চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. গোলাম কাজেম আলী আহমদ
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে – ডেপুটি স্পীকার

রাজশাহীতে দুই চিকিৎসকের খূনের রহস্যের অন্ধকারে  পুলিশ

আপডেট সময় ০৩:৩৯:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ নভেম্বর ২০২৩
রাজশাহীতে একরাতেই দুই চিকিৎসক খুনের ঘটনার ৬দিন পার হলেও এখনও কোনো রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ। দুই খুনের ঘটনায় মামলা হলেও আসামি গ্রেপ্তার হয়নি। কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা নিয়ে অন্ধকারে রয়েছে পুলিশ। তবে পুলিশ বলছে, তদন্ত চলছে। রহস্য উদঘাটন হবে।
এদিকে, রাজশাহীর ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের ডা. কাজেমের খুনিদের ধরতে ফের কর্মসূচি দিয়েছে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)। খুনিরা গ্রেপ্তার না হওয়ায় সংগঠনটি নতুন কর্মসূচি দিয়েছে। কর্মসূচি অনুযায়ী ৪ ও ৫ অক্টোবর শনিবার ও  রোববার বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত এক ঘণ্টা করে কর্মবিরতি পালন করবেন চিকিৎসকেরা। এই একঘণ্টা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে সমাবেশ হবে। এর আগে আসামীদের ধরতে ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছিলো।
বিএমএ রাজশাহীর সভাপতি ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নওশাদ আলী বলেন, ‘আমরা আরএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করে খুনিদের ধরতে একটা সময়সীমা দিয়েছিলাম। সেটা বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে। এ জন্য আমাদের নতুন কর্মসূচি দিতে হয়েছে। দুই দিন একঘণ্টা করে কর্মবিরতি পালন করা হবে। এরপরও তদন্তের অগ্রগতি না হলে আরও কঠোর কর্মসূচি আসতে পারে।
রাজশাহী নগর পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার জামিরুল ইসলাম বলেন, ‘দুই খুনের ঘটনায় পুলিশ তদন্ত কার্যক্রম চালাচ্ছে। এখনও পর্যন্ত বলার মতো অগ্রগতি নেই। তবে অচিরেই দুই খুনের রহস্য উদঘাটন হবে। খুনিরাও ধরা পড়বে।
গত ২৯ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আরএমপির চন্দ্রিমা থানার কৃষ্টগঞ্জ বাজারের পল্লি চিকিৎসক এরশাদ আলী দুলালকে তুলে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। রাত ৯টার দিকে নগরীর সিটিহাট এলাকায় রাস্তার পাশে তার রক্তাক্ত লাশ পাওয়া যায়। এরপর রাত পৌনে ১২টার দিকে চেম্বার শেষ করে ফেরার পথে নগরীর বর্নালী খুন হন যৌন ও চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. গোলাম কাজেম আলী আহমদ