ঢাকা ০৪:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বেতন ছাড়াই ২৫ বছর চাকরি শেষে আক্ষেপ নিয়েই চিরবিদায়

রাজশাহীর বাঘার মাদ্রাসা শিক্ষক বেলাল হোসেন

রাজশাহীর বাঘার মাদ্রাসা শিক্ষক বেলাল হোসেন। ২৫ বছর চাকরি করেছেন তিনি। কিন্তু পাননি বেতন। এ আক্ষেপ নিয়েই চিরবিদায় নিয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিন ডায়াবেটিক রোগে ভুগে তার মৃত্যু হয়। শিক্ষক বেলাল উপজেলার আড়ানী পৌরসভার চকরপাড়া মহল্লার বাসিন্দা ছিলেন। তার বেতন না পাওয়ার কারণ, প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত হয়নি। তবু শিক্ষকতা না ছেড়ে ৩৫ বছর একই মসজিদে ইমামতির দায়িত্ব পালন আর কুরআন শিক্ষা দিয়ে উপার্জিত অর্থে সংসার চালিয়েছেন এ শিক্ষাগুরু।

বেলালের ভাতিজা মামুন হোসেন জানান, তার চাচা ছাত্রজীবন থেকে চকরপাড়া মসজিদে দীর্ঘ ৩৫ বছর ইমামের দায়িত্ব পালন করেন। পাশাপাশি তিনি চকরপাড়া দাখিল মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করেছেন। প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত না হওয়ায় পাঁচ বছর পর একই এলাকার অপর এক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আড়ানী দাখিল মাদ্রাসার সহকারী মাওলানা শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। নিয়মের বেড়াজালে দীর্ঘদিনেও ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটিও এমপিওভুক্ত না হওয়ায় ২৫ বছর বিনা বেতনে শ্রম দিয়েছেন।

জানা গেছে, মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলাল মারা যান। বিকেল সোয়া ৪টায় জানাজা শেষে আড়ানী কেন্দ্রীয় গোরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

আড়ানী দাখিল মাদ্রাসার সুপার আবু হানিফ জানান, বেলালের প্রতিবন্ধী এক ছেলেও এর আগে মারা গেছে। বর্তমানে তিন মেয়ের একজন কুরআনের হাফেজা, অপর একজন একাদশ শ্রেণির ছাত্রী এবং ছোটজন স্থানীয় প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষার্থী। তার আর্থিক অবস্থা ভালো ছিল না।

২০০৩ সালে বেলাল সহকারী মাওলানা শিক্ষক হিসেবে তার মাদ্রাসায় যোগদান করেন। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত হয়নি। তবু দীর্ঘদিন বিনা বেতনে তিনি শিক্ষকতা করেন।

আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

মিডিয়া তালিকাভুক্ত জাতীয় দৈনিক নববাণী পত্রিকার জন্য সকল জেলা উপজেলায় সংবাদ কর্মী আবশ্যকঃ- আগ্রহীরা আজই আবেদন করুন। মেইল: 24nababani@gmail.com
জনপ্রিয় সংবাদ

৫৮২ কোটি টাকার সার আ’ত্ম’সা’ৎ মা’ম’লা’য় হাইকোর্টের জামিন স্থগিত করেছেন চেম্বার আদালত

বেতন ছাড়াই ২৫ বছর চাকরি শেষে আক্ষেপ নিয়েই চিরবিদায়

আপডেট সময় ০৬:২৩:১৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ নভেম্বর ২০২৩

রাজশাহীর বাঘার মাদ্রাসা শিক্ষক বেলাল হোসেন। ২৫ বছর চাকরি করেছেন তিনি। কিন্তু পাননি বেতন। এ আক্ষেপ নিয়েই চিরবিদায় নিয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিন ডায়াবেটিক রোগে ভুগে তার মৃত্যু হয়। শিক্ষক বেলাল উপজেলার আড়ানী পৌরসভার চকরপাড়া মহল্লার বাসিন্দা ছিলেন। তার বেতন না পাওয়ার কারণ, প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত হয়নি। তবু শিক্ষকতা না ছেড়ে ৩৫ বছর একই মসজিদে ইমামতির দায়িত্ব পালন আর কুরআন শিক্ষা দিয়ে উপার্জিত অর্থে সংসার চালিয়েছেন এ শিক্ষাগুরু।

বেলালের ভাতিজা মামুন হোসেন জানান, তার চাচা ছাত্রজীবন থেকে চকরপাড়া মসজিদে দীর্ঘ ৩৫ বছর ইমামের দায়িত্ব পালন করেন। পাশাপাশি তিনি চকরপাড়া দাখিল মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করেছেন। প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত না হওয়ায় পাঁচ বছর পর একই এলাকার অপর এক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আড়ানী দাখিল মাদ্রাসার সহকারী মাওলানা শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। নিয়মের বেড়াজালে দীর্ঘদিনেও ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটিও এমপিওভুক্ত না হওয়ায় ২৫ বছর বিনা বেতনে শ্রম দিয়েছেন।

জানা গেছে, মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলাল মারা যান। বিকেল সোয়া ৪টায় জানাজা শেষে আড়ানী কেন্দ্রীয় গোরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

আড়ানী দাখিল মাদ্রাসার সুপার আবু হানিফ জানান, বেলালের প্রতিবন্ধী এক ছেলেও এর আগে মারা গেছে। বর্তমানে তিন মেয়ের একজন কুরআনের হাফেজা, অপর একজন একাদশ শ্রেণির ছাত্রী এবং ছোটজন স্থানীয় প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষার্থী। তার আর্থিক অবস্থা ভালো ছিল না।

২০০৩ সালে বেলাল সহকারী মাওলানা শিক্ষক হিসেবে তার মাদ্রাসায় যোগদান করেন। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত হয়নি। তবু দীর্ঘদিন বিনা বেতনে তিনি শিক্ষকতা করেন।