ঢাকা ১১:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

“প্রধানমন্ত্রী সহ তার পিতা ও পুত্রকে নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তি করায় রাজশাহীর আদালতে মামলা দায়ের “

ফাইল ছবি।

সুনামগঞ্জ জেলার  ধর্মপাসা উপজেলায় ফেসবুকে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পুত্র ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে কটুক্তি করায় আমিনুল হক চৌধুরী  (৪৫)নামের এক  ব্যক্তির বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ২০১৮ সালের  (২১)(২৫)(২৭)(২৯) ও(৩১) ধারায় রাজশাহীর সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে একটি  মামলা  দায়ের করা হয়েছে।
মামলার বাদী  হলেন জয়পুরহাট জেলার  সাংবাদিক আব্দুর রাজ্জাক।
মামলা  সূত্রে জানা গেছে, গত  ৩ আগস্ট প্রধান মন্ত্রীর সজীব  ওয়াজেদ জয়কে কটুক্তি করে পোষ্ট দেন, তিনি একমাত্র বিজ্ঞানী যুক্তরাষ্ট্রে বসে বাংলাদেশ থেকে ৩ কোটি টাকা বেতন পান  তিনি বিশ্বের একমাত্র মহা বিজ্ঞানি গত ২০আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে  স্বাধীন বাংলাদের প্রথম হত্যাকারী বলেন এবং গত ২১আগস্ট প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে পোষ্ট দেন, গণতন্ত্র  হত্যা করে ভারতের হাতে তুলে দেন ইত্যাদি রাষ্ট্র বিরোধী বক্তব্য দেন সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা উপজেলার মাইজবারি গ্রামের  আঃ কুদ্দুস চৌধরীর ছেলে আমিনুল হক চৌধুরী তার ফেসবুক আইডি থেকে এমনকি  বিভিন্ন সময়ে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা,ও  সজিব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে কটুক্তি ও অবমাননাকর পোষ্ট দিয়ে আসছিল। এরই সূত্র ধরে চলতি বছরের (৩১আগস্ট) জয়পুরহাট জেলার সাংবাদিক আঃ রাজ্জাক বাদী হয়ে রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আইনজীবী মামুনুর রশীদ জন এর মাধ্যমে তিনি মামলাটি দায়ের করেন। আদালতের  জ্যৈষ্ঠ বিচারক দায়রা জজ জিয়াউর রহমান মামলাটি আমলে নিয়েছেন৷
এবিষয়ে মামলার বাদী সাংবাদিক আঃ রাজ্জাক বলেন আমরা সাংবাদ কর্মী  রাষ্টের ৪র্থ স্তম্ভ রাষ্টের সম্মানি ব্যক্তিদের  নিয়ে কটুক্তি কারী আমাদের দেশের জন্য অমঙ্গল কর। আমিনুল ইসলাম  আইডিতে বিভিন্ন সময়ে বঙ্গবন্ধু,  প্রধানমন্ত্রী ও সজিব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে কুটিক্তি করে পোষ্ট দিয়ে আসছে  ফলে আমার নজরে আসলে আমি আদলতের সরাপন্ন হয়েছি৷ বিগ বিচারক অভিযোগটি আমলে নিয়েছেন।
বাদি পক্ষের আইনজীবী মামুনুর রশীদ জন বলেন, আসামি আমিনুল ইসলাম চৌধুরী তার নিজ আইডিতে  বঙ্গবন্ধু প্রধানমন্ত্রী ও সজিব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ  মাধ্যম (সোশ্যাল  মিডিয়ায়) বিভিন্ন ভাবে কটুক্তি করাই আদালতের নজরে এনেছি বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আজ বুধবার ৩১ আগষ্ট আমলে নিয়েছেন।
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

মোহনপুর উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আল মোমেন শাহ  গাবরুর নির্বাচনীয় বিশাল জনসভা অনুষ্ঠিত হয় 

“প্রধানমন্ত্রী সহ তার পিতা ও পুত্রকে নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তি করায় রাজশাহীর আদালতে মামলা দায়ের “

আপডেট সময় ০৮:০৫:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ অগাস্ট ২০২২
সুনামগঞ্জ জেলার  ধর্মপাসা উপজেলায় ফেসবুকে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পুত্র ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে কটুক্তি করায় আমিনুল হক চৌধুরী  (৪৫)নামের এক  ব্যক্তির বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ২০১৮ সালের  (২১)(২৫)(২৭)(২৯) ও(৩১) ধারায় রাজশাহীর সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে একটি  মামলা  দায়ের করা হয়েছে।
মামলার বাদী  হলেন জয়পুরহাট জেলার  সাংবাদিক আব্দুর রাজ্জাক।
মামলা  সূত্রে জানা গেছে, গত  ৩ আগস্ট প্রধান মন্ত্রীর সজীব  ওয়াজেদ জয়কে কটুক্তি করে পোষ্ট দেন, তিনি একমাত্র বিজ্ঞানী যুক্তরাষ্ট্রে বসে বাংলাদেশ থেকে ৩ কোটি টাকা বেতন পান  তিনি বিশ্বের একমাত্র মহা বিজ্ঞানি গত ২০আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে  স্বাধীন বাংলাদের প্রথম হত্যাকারী বলেন এবং গত ২১আগস্ট প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে পোষ্ট দেন, গণতন্ত্র  হত্যা করে ভারতের হাতে তুলে দেন ইত্যাদি রাষ্ট্র বিরোধী বক্তব্য দেন সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা উপজেলার মাইজবারি গ্রামের  আঃ কুদ্দুস চৌধরীর ছেলে আমিনুল হক চৌধুরী তার ফেসবুক আইডি থেকে এমনকি  বিভিন্ন সময়ে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা,ও  সজিব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে কটুক্তি ও অবমাননাকর পোষ্ট দিয়ে আসছিল। এরই সূত্র ধরে চলতি বছরের (৩১আগস্ট) জয়পুরহাট জেলার সাংবাদিক আঃ রাজ্জাক বাদী হয়ে রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আইনজীবী মামুনুর রশীদ জন এর মাধ্যমে তিনি মামলাটি দায়ের করেন। আদালতের  জ্যৈষ্ঠ বিচারক দায়রা জজ জিয়াউর রহমান মামলাটি আমলে নিয়েছেন৷
এবিষয়ে মামলার বাদী সাংবাদিক আঃ রাজ্জাক বলেন আমরা সাংবাদ কর্মী  রাষ্টের ৪র্থ স্তম্ভ রাষ্টের সম্মানি ব্যক্তিদের  নিয়ে কটুক্তি কারী আমাদের দেশের জন্য অমঙ্গল কর। আমিনুল ইসলাম  আইডিতে বিভিন্ন সময়ে বঙ্গবন্ধু,  প্রধানমন্ত্রী ও সজিব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে কুটিক্তি করে পোষ্ট দিয়ে আসছে  ফলে আমার নজরে আসলে আমি আদলতের সরাপন্ন হয়েছি৷ বিগ বিচারক অভিযোগটি আমলে নিয়েছেন।
বাদি পক্ষের আইনজীবী মামুনুর রশীদ জন বলেন, আসামি আমিনুল ইসলাম চৌধুরী তার নিজ আইডিতে  বঙ্গবন্ধু প্রধানমন্ত্রী ও সজিব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ  মাধ্যম (সোশ্যাল  মিডিয়ায়) বিভিন্ন ভাবে কটুক্তি করাই আদালতের নজরে এনেছি বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আজ বুধবার ৩১ আগষ্ট আমলে নিয়েছেন।