ঢাকা ০৪:২০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পরিবেশ সুরক্ষায় সবাইকে সচেতন হতে হবে। -সিটি মেয়র

বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ, পরিবেশ মেলা, সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদানসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে আজ (বৃহস্পতিবার) খুলনায় বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত হয়। দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘করবো ভূমি পুনরুদ্ধার, রুখবো মরুময়তা, অর্জন করতে হবে মোদের খরা সহনশীলতা’।

এ উপলক্ষ্যে খুলনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, পরিবেশ সুরক্ষায় সবাইকে সচেতন হতে হবে। তাপমাত্রা ও জলবায়ুর পরিবর্তন হচ্ছে। আগামী প্রজন্মের সন্তানদের সুন্দরভাবে বাসযোগ্য করতে প্রাকৃতিক পরিবেশ সুরক্ষা অতি জরুরি। পরিবেশ ভাল থাকলে আমরা ভাল থাকবো। এজন্য বৃক্ষরোপণ অব্যাহত ও জলাশয় সংরক্ষণ করতে হবে। পলিথিন ও প্লাস্টিক জাতীয় পণ্যের ব্যবহার বর্জন করে পরিবেশ উপযোগী পণ্য ব্যবহার করতে হবে। তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকার পরিবেশ সুরক্ষায় বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে পরিকল্পিত পরিবেশের বিকল্প নেই। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষকে প্রকৃতিক বিপর্যয় থেকে সুন্দরবন রক্ষা করে। বন দস্যুদের হাত থেকে সুন্দরবনকে বাঁচাতে তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান। খুলনা বিভাগীয়, জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তর যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

খুলনার বিভাগীয় কমিশনার মোঃ হেলাল মাহমুদ শরীফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ মোজাম্মেল হক, খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়াার জেনারেল এস এম মিরাজুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মুকুল কুমার মৈত্র ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুশান্ত সরকার। অনুষ্ঠানে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন খুলনা বিশ্ব বিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. সালমা বেগম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন খুলনা পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক মোঃ ইকবাল হোসেন।

অনুষ্ঠানে রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়া পরিবেশের ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য খুলনর রায়ের মহল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, হাজী ফয়েজ উদ্দিন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়, বয়রা ডাক বিভাগীয় মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ফুলতলা রি-ইউনিয়ন স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষকদের হাতে সনদপত্র ও সম্মাননা ক্রেস্ট ও ব্যক্তি পর্যায়ে আটজন এবং প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে তিনজনের মাঝে সনদপত্র ও সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

খুলনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে তিন দিনব্যাপী মেলা প্রতিদিন সকাল নয়টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। মেলায় ২০ টি স্টল পরিবেশ সম্মত পাটপণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি করবে।

এর আগে দিবসটি উপলক্ষ্যে মেয়রের নেতৃত্বে খুলনা রেলওয়ে স্টেশন চত্বর থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শিল্পকলা একাডেমিতে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

Daily Naba Bani

মিডিয়া তালিকাভুক্ত জাতীয় দৈনিক নববাণী পত্রিকার জন্য সকল জেলা উপজেলায় সংবাদ কর্মী আবশ্যকঃ- আগ্রহীরা আজই আবেদন করুন। মেইল: 24nababani@gmail.com
জনপ্রিয় সংবাদ

সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ভোগান্তিতে ৮ লক্ষাধিক মানুষ

পরিবেশ সুরক্ষায় সবাইকে সচেতন হতে হবে। -সিটি মেয়র

আপডেট সময় ০৪:২০:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪

বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ, পরিবেশ মেলা, সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদানসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে আজ (বৃহস্পতিবার) খুলনায় বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত হয়। দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘করবো ভূমি পুনরুদ্ধার, রুখবো মরুময়তা, অর্জন করতে হবে মোদের খরা সহনশীলতা’।

এ উপলক্ষ্যে খুলনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, পরিবেশ সুরক্ষায় সবাইকে সচেতন হতে হবে। তাপমাত্রা ও জলবায়ুর পরিবর্তন হচ্ছে। আগামী প্রজন্মের সন্তানদের সুন্দরভাবে বাসযোগ্য করতে প্রাকৃতিক পরিবেশ সুরক্ষা অতি জরুরি। পরিবেশ ভাল থাকলে আমরা ভাল থাকবো। এজন্য বৃক্ষরোপণ অব্যাহত ও জলাশয় সংরক্ষণ করতে হবে। পলিথিন ও প্লাস্টিক জাতীয় পণ্যের ব্যবহার বর্জন করে পরিবেশ উপযোগী পণ্য ব্যবহার করতে হবে। তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকার পরিবেশ সুরক্ষায় বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে পরিকল্পিত পরিবেশের বিকল্প নেই। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষকে প্রকৃতিক বিপর্যয় থেকে সুন্দরবন রক্ষা করে। বন দস্যুদের হাত থেকে সুন্দরবনকে বাঁচাতে তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান। খুলনা বিভাগীয়, জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তর যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

খুলনার বিভাগীয় কমিশনার মোঃ হেলাল মাহমুদ শরীফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ মোজাম্মেল হক, খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়াার জেনারেল এস এম মিরাজুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মুকুল কুমার মৈত্র ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুশান্ত সরকার। অনুষ্ঠানে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন খুলনা বিশ্ব বিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. সালমা বেগম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন খুলনা পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক মোঃ ইকবাল হোসেন।

অনুষ্ঠানে রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়া পরিবেশের ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য খুলনর রায়ের মহল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, হাজী ফয়েজ উদ্দিন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়, বয়রা ডাক বিভাগীয় মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ফুলতলা রি-ইউনিয়ন স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষকদের হাতে সনদপত্র ও সম্মাননা ক্রেস্ট ও ব্যক্তি পর্যায়ে আটজন এবং প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে তিনজনের মাঝে সনদপত্র ও সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

খুলনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে তিন দিনব্যাপী মেলা প্রতিদিন সকাল নয়টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। মেলায় ২০ টি স্টল পরিবেশ সম্মত পাটপণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি করবে।

এর আগে দিবসটি উপলক্ষ্যে মেয়রের নেতৃত্বে খুলনা রেলওয়ে স্টেশন চত্বর থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শিল্পকলা একাডেমিতে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।