ঢাকা ০৭:১৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পরকীয়ার বিরুদ্ধে কথা বলায় ইউপি সদস্যের  উপর হামলা,,

গত ৪ মাস আগে সরূপকাঠি উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নের ডুবি নিবাসি সায়েম(৩০), ডুবি বটতলা নিবাসী

মোঃ ফাকরুল(৩৫)এর স্ত্রী মোসাঃফেরদাউসির সাথে পরোকিয়ার জরিয়ে পরে এবং পালিয়ে যায়। ফেরদাউসির ২ বছরের একটি মেয়ে সন্তান ও আছে। পরে এই বিষয়টি জানাজানি হলো ফেরদাউসির স্বামী বলদিয়া ইউনিয়নের ২নংওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ সহিদুল ইসলাম কে জানায়।পরে এই বিষয়টি তিনি সায়েম ও ফেরদাউসির পরিবার কে জানান এবং বিষয়টি মিমাংসার চেস্টা করেন।

গত ৯/০৭/২০২৩ তারিখ ডুবি আলিম মাদ্রাসা সংলগ্ন মোঃরেজাউল মিয়ার দোকানের কাছে মেম্বার সহিদুল ইসলাম মেয়ে ও ছেলের বাবাকে বিষয়টি মিমাংসার জন্য  ডাকে।পরে সায়েম এর বাবা মোঃবাদল (৫০) তিনি মিমাংসার বিরোধিতা করে এবং তিনি ইউপি সদস্যকে গালাগালি করে। এক পর্যায় তিনি ইউপি সদস্যকে মারধর ও করে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত মোঃসান্ট, দোকানদার মোঃরেজাউল জানান, ইউপি সদস্য সহিদুল ইসলাম বিষয়টি মিমাংসা করতে চেয়েছিলেন কিন্তু মো বাদল মিয়া তাকে অহেতুক ভাষায় গালাগালি করে এবং একপর্যায় মারধরও করে। তারা এবং স্থানীয় জনগন এই বিষটির সঠিক বিচার দাবি করেন।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

পিবিআই রাজশাহীতে মামলা তদন্ত ও প্রতিবেদন দাখিল ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত

পরকীয়ার বিরুদ্ধে কথা বলায় ইউপি সদস্যের  উপর হামলা,,

আপডেট সময় ১২:১৮:৫৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০২৩

গত ৪ মাস আগে সরূপকাঠি উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নের ডুবি নিবাসি সায়েম(৩০), ডুবি বটতলা নিবাসী

মোঃ ফাকরুল(৩৫)এর স্ত্রী মোসাঃফেরদাউসির সাথে পরোকিয়ার জরিয়ে পরে এবং পালিয়ে যায়। ফেরদাউসির ২ বছরের একটি মেয়ে সন্তান ও আছে। পরে এই বিষয়টি জানাজানি হলো ফেরদাউসির স্বামী বলদিয়া ইউনিয়নের ২নংওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ সহিদুল ইসলাম কে জানায়।পরে এই বিষয়টি তিনি সায়েম ও ফেরদাউসির পরিবার কে জানান এবং বিষয়টি মিমাংসার চেস্টা করেন।

গত ৯/০৭/২০২৩ তারিখ ডুবি আলিম মাদ্রাসা সংলগ্ন মোঃরেজাউল মিয়ার দোকানের কাছে মেম্বার সহিদুল ইসলাম মেয়ে ও ছেলের বাবাকে বিষয়টি মিমাংসার জন্য  ডাকে।পরে সায়েম এর বাবা মোঃবাদল (৫০) তিনি মিমাংসার বিরোধিতা করে এবং তিনি ইউপি সদস্যকে গালাগালি করে। এক পর্যায় তিনি ইউপি সদস্যকে মারধর ও করে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত মোঃসান্ট, দোকানদার মোঃরেজাউল জানান, ইউপি সদস্য সহিদুল ইসলাম বিষয়টি মিমাংসা করতে চেয়েছিলেন কিন্তু মো বাদল মিয়া তাকে অহেতুক ভাষায় গালাগালি করে এবং একপর্যায় মারধরও করে। তারা এবং স্থানীয় জনগন এই বিষটির সঠিক বিচার দাবি করেন।