ঢাকা ০৯:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
পবা উপজেলার হত-দরিদ্রদের আয় বৃদ্ধির জন্য ও তাদের স্বাবলম্বী করার জন্য এ উদ্যোগ হাতে নেওয়া হয়েছে।

পবায় দরিদ্র উপকারভোগীর মাঝে মুদির দোকানের মালামাল বিতরণ।

ফাইল ছবি।

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ পবা এপির আয়োজনে ১০ জন লক্ষিত দরিদ্র উপকারভোগীর মাঝে মুদির দোকানের মালামাল বিতরণ করা হয়। বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) সকালে পবা এপি অফিস প্রাঙ্গনে উক্ত বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  পবা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. ওয়াজেদ আলী খাঁন।
প্রোগ্রাম অফিসার রতন কুমার ভৌমিকের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের রাজশাহী অঞ্চলের সিনিয়র ম্যানেজার সেবাষ্টিয়ান পিউরীফিকেশন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান  ওয়াজেদ আলী খাঁন বলেন ‘‘পবা এলাকার হতদরিদ্রদের উন্নয়ন ও শিশু সুরক্ষার জন্য ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ পবা এপি নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আমি ওয়ার্ল্ড ভিশনের উত্তোরত্তর সমৃদ্ধি কামনা করি।’’ এছাড়াও তিনি উপকারভোগীদের প্রাপ্ত উপকরণ দিয়ে ব্যবসা চালিয়ে যাওয়ার উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা দান করেন।
উল্লেখ্য, পবা উপজেলার হত-দরিদ্রদের আয় বৃদ্ধির জন্য ও তাদের স্বাবলম্বী করার জন্য এ উদ্যোগ হাতে নেওয়া হয়েছে। পবা উপজেলার ১০ জন সুফল ভোগীর প্রত্যেকে ১৯ হাজার ২শত নিরানব্বই টাকা করে মোট ১ লক্ষ ৯২ হাজার ২শত নব্বই টাকার মুদির দোকানের মালামাল বিতরণ করা হয় । এগুলো হচ্ছে, চিনি- ৫০কেজি, চাল- ২৫ কেজি, আটা- ৩৭ কেজি, সয়াবিন তেল- ১২লিটার, রাধুনি শরিষার তেল- ২ কেজি ৪০০ গ্ৰাম , মুশুর ডাল- ২৫ কেজি, প্যারাসুট নারিকেল তেল ৬০০ মিলি, প্যারাসুট নারিকেল তেল- ১২ বোতল, লবন- ৫০ কেজি, লাইফবয় সাবান-১২টি, লাক্স সাবান-১২টি, চাকা ডিটারজেন্ট-১২ প্যাকেট, রিন ডিটারজেন্ট- ৬প্যাকেট, চাকা লন্ড্রি সাবান- ২৪ প্যাকেট, টুথপেষ্ট- ২৪ পিস, এনার্জি প্লাস বিস্কুট- ৪৮ পিস।
জনপ্রিয় সংবাদ

মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে – ডেপুটি স্পীকার

পবা উপজেলার হত-দরিদ্রদের আয় বৃদ্ধির জন্য ও তাদের স্বাবলম্বী করার জন্য এ উদ্যোগ হাতে নেওয়া হয়েছে।

পবায় দরিদ্র উপকারভোগীর মাঝে মুদির দোকানের মালামাল বিতরণ।

আপডেট সময় ০৮:৫৭:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ মার্চ ২০২২
ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ পবা এপির আয়োজনে ১০ জন লক্ষিত দরিদ্র উপকারভোগীর মাঝে মুদির দোকানের মালামাল বিতরণ করা হয়। বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) সকালে পবা এপি অফিস প্রাঙ্গনে উক্ত বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  পবা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. ওয়াজেদ আলী খাঁন।
প্রোগ্রাম অফিসার রতন কুমার ভৌমিকের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের রাজশাহী অঞ্চলের সিনিয়র ম্যানেজার সেবাষ্টিয়ান পিউরীফিকেশন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান  ওয়াজেদ আলী খাঁন বলেন ‘‘পবা এলাকার হতদরিদ্রদের উন্নয়ন ও শিশু সুরক্ষার জন্য ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ পবা এপি নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আমি ওয়ার্ল্ড ভিশনের উত্তোরত্তর সমৃদ্ধি কামনা করি।’’ এছাড়াও তিনি উপকারভোগীদের প্রাপ্ত উপকরণ দিয়ে ব্যবসা চালিয়ে যাওয়ার উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা দান করেন।
উল্লেখ্য, পবা উপজেলার হত-দরিদ্রদের আয় বৃদ্ধির জন্য ও তাদের স্বাবলম্বী করার জন্য এ উদ্যোগ হাতে নেওয়া হয়েছে। পবা উপজেলার ১০ জন সুফল ভোগীর প্রত্যেকে ১৯ হাজার ২শত নিরানব্বই টাকা করে মোট ১ লক্ষ ৯২ হাজার ২শত নব্বই টাকার মুদির দোকানের মালামাল বিতরণ করা হয় । এগুলো হচ্ছে, চিনি- ৫০কেজি, চাল- ২৫ কেজি, আটা- ৩৭ কেজি, সয়াবিন তেল- ১২লিটার, রাধুনি শরিষার তেল- ২ কেজি ৪০০ গ্ৰাম , মুশুর ডাল- ২৫ কেজি, প্যারাসুট নারিকেল তেল ৬০০ মিলি, প্যারাসুট নারিকেল তেল- ১২ বোতল, লবন- ৫০ কেজি, লাইফবয় সাবান-১২টি, লাক্স সাবান-১২টি, চাকা ডিটারজেন্ট-১২ প্যাকেট, রিন ডিটারজেন্ট- ৬প্যাকেট, চাকা লন্ড্রি সাবান- ২৪ প্যাকেট, টুথপেষ্ট- ২৪ পিস, এনার্জি প্লাস বিস্কুট- ৪৮ পিস।