ঢাকা ০৮:৪৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৭ এপ্রিল ২০২৪, ২৪ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বিএনপি নেতা ইস্রাফিল আলম বলেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আবু হানিফ পুকুর খননের দায়িত্বে রয়েছেন

দুর্গাপুরে নদী দখল করে পুকুর খনন

নববানী নিউজ ডেস্ক

আওয়ামীলীগ  নেতাদের সাথে পাল্লা দিয়ে  দিয়ে  বিএনপি নেতারাও  পাল্লা দিয়ে  পুকুর খননে প্রতিযোগিতায় মেতেছে। আবার কোথাও কোথাও  আওয়ামী লীগ- বিএনপি নেতারা মিলে ঝুলে খাস জল মহাল ও নদী দখল করে করছে পুকুর খনন।
এই ভূমিদস্যু শকুনদের চোখ পড়েছে এবার দুর্গাপুরের মালঞ্চি নদীর উপর। খাল-বিলের পর এবার নদী দখল করে পুকুর খননের অভিযোগ উঠেছে রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার বখতিয়ারপুর এলাকার এক বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে।
বখতিয়ারপুর-লক্ষীপুর গ্রামের মাঝ দিয়ে বয়ে যাওয়া মালঞ্চি নদী দখল করে গত এক সপ্তাহ ধরে পুকুর খনন করলেও দেখার যেন কেউ নেই। স্থানীয়রা বলছেন, এভাবে নদী দখল করে পুকুর খনন করলে বর্ষা মৌসুমে পানির প্রবাহ বন্ধ হয়ে যাবে। বন্যার পানির নিচে তলিয়ে যাবে আশেপাশের কয়েকটি গ্রামের ঘরবাড়ি।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলার লক্ষীপুর-বখতিয়ারপুর গ্রামের মাঝ দিয়ে বয়ে যাওয়া মালঞ্চি নদী দখল করে গত এক সপ্তাহ ধরে পুকুর খনন করছেন বখতিয়ারপুর গ্রামের বিএনপি নেতা ইস্রাফিল আলম। পাশেই আক্কাস নামের আরেক বিএনপি নেতা নতুন করে আরও একটি পুকুর খনন করছেন। নদীর মাঝামাঝি পুকুর খনন করে সরকারি খাস জমিগুলো নিজেদের দখলে নিচ্ছেন তারা। এভাবে নদী দখল করে পুকুর খনন করলেও কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই সংশ্লিষ্টদের।
গ্রামবাসীরা জানান, নদী দখল করে এভাবে পুকুর খনন করলে নদীর নাব্যতা হারিয়ে যাবে। বর্ষা মৌসুমে নদীর পানি প্রবাহিত হতে না পারলে এলাকার কয়েকটি গ্রাম বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়ে যাবে। তাই সময় থাকতেই সংশ্লিষ্টদের এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া উচিৎ।
জানতে চাইলে বিএনপি নেতা ইস্রাফিল আলম বলেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আবু হানিফ পুকুর খননের দায়িত্বে রয়েছেন। তিনি সকলকে ‘ম্যানেজ’ করে পুকুর খননের অনুমতি দিয়েছেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে – ডেপুটি স্পীকার

বিএনপি নেতা ইস্রাফিল আলম বলেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আবু হানিফ পুকুর খননের দায়িত্বে রয়েছেন

দুর্গাপুরে নদী দখল করে পুকুর খনন

আপডেট সময় ০৬:০২:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ জুন ২০২২
আওয়ামীলীগ  নেতাদের সাথে পাল্লা দিয়ে  দিয়ে  বিএনপি নেতারাও  পাল্লা দিয়ে  পুকুর খননে প্রতিযোগিতায় মেতেছে। আবার কোথাও কোথাও  আওয়ামী লীগ- বিএনপি নেতারা মিলে ঝুলে খাস জল মহাল ও নদী দখল করে করছে পুকুর খনন।
এই ভূমিদস্যু শকুনদের চোখ পড়েছে এবার দুর্গাপুরের মালঞ্চি নদীর উপর। খাল-বিলের পর এবার নদী দখল করে পুকুর খননের অভিযোগ উঠেছে রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার বখতিয়ারপুর এলাকার এক বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে।
বখতিয়ারপুর-লক্ষীপুর গ্রামের মাঝ দিয়ে বয়ে যাওয়া মালঞ্চি নদী দখল করে গত এক সপ্তাহ ধরে পুকুর খনন করলেও দেখার যেন কেউ নেই। স্থানীয়রা বলছেন, এভাবে নদী দখল করে পুকুর খনন করলে বর্ষা মৌসুমে পানির প্রবাহ বন্ধ হয়ে যাবে। বন্যার পানির নিচে তলিয়ে যাবে আশেপাশের কয়েকটি গ্রামের ঘরবাড়ি।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলার লক্ষীপুর-বখতিয়ারপুর গ্রামের মাঝ দিয়ে বয়ে যাওয়া মালঞ্চি নদী দখল করে গত এক সপ্তাহ ধরে পুকুর খনন করছেন বখতিয়ারপুর গ্রামের বিএনপি নেতা ইস্রাফিল আলম। পাশেই আক্কাস নামের আরেক বিএনপি নেতা নতুন করে আরও একটি পুকুর খনন করছেন। নদীর মাঝামাঝি পুকুর খনন করে সরকারি খাস জমিগুলো নিজেদের দখলে নিচ্ছেন তারা। এভাবে নদী দখল করে পুকুর খনন করলেও কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই সংশ্লিষ্টদের।
গ্রামবাসীরা জানান, নদী দখল করে এভাবে পুকুর খনন করলে নদীর নাব্যতা হারিয়ে যাবে। বর্ষা মৌসুমে নদীর পানি প্রবাহিত হতে না পারলে এলাকার কয়েকটি গ্রাম বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়ে যাবে। তাই সময় থাকতেই সংশ্লিষ্টদের এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া উচিৎ।
জানতে চাইলে বিএনপি নেতা ইস্রাফিল আলম বলেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আবু হানিফ পুকুর খননের দায়িত্বে রয়েছেন। তিনি সকলকে ‘ম্যানেজ’ করে পুকুর খননের অনুমতি দিয়েছেন।