ঢাকা ০১:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তুরস্কের সড়কবাতির আলোয় আলোকিত রাজশাহী নগরীর সড়ক

সুদৃশ্য ও দৃষ্টিনন্দন পোল ও সড়কবাতির আলোয় আলোকিত

তুরস্ক থেকে আনা সুদৃশ্য ও দৃষ্টিনন্দন পোল ও সড়কবাতির আলোয় আলোকিত হলো রাজশাহী মহানগরীর একটি সড়ক। নগরীর তালাইমারী মোড় হতে কাটাখালী বাজার পর্যন্ত সড়কটি সুদৃশ্য ও দৃষ্টিনন্দন পোলে সড়কবাতিতে আলোকায়নের অংশ হিসেবে প্রথম পর্যায়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে থেকে চৌদ্দপাই ফায়ার সার্ভিস মোড় পর্যন্ত আলোকায়নের উদ্বোধন করা হয়েছে।
রবিবার (২৬ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টায় নগরীর বিহাস আনুষ্ঠানিকভাবে সড়কটির আলোকায়নের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।
এ সময় রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আলোকায়নের দিক দিয়ে রাজশাহী শহরকে বিশ্বমানের শহরে পরিণত করা হচ্ছে। তুরস্ক থেকে আনা সুদৃশ্য ও ডেকোরেটিভ পোল ও সড়কবাতি নগরীর তালাইমারি থেকে কাটাখালি বাজার পর্যন্ত সড়কে স্থাপন করা হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে ৫০টি ডেকোরেটিভ পোলে আলোকায়ন করা হলো। আরো ১০০টি পোল জাহাজে করা আনা হচ্ছে। প্রতিটি পোলে সিটি কর্পোরেশনের মনোগ্রাম ও নাম রয়েছে। এই ধরনের পোল ও সড়কবাতি বাংলাদেশে আমরাই প্রথম এনেছি।
রাসিক মেয়র আরো বলেন, দিনের বেলা পরিচ্ছন্ন ঝকঝকে রাজশাহী আমরা উপহার দিয়েছি। আর রাতের রাজশাহী হচ্ছে আলোকসজ্জিত।এই আলোকায়নে নিরাপত্তা ও নগরীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি পাচ্ছে। সড়কটির কাজ সম্পন্ন শেষ হলে এটি দেখতে আসবেন অনেকে। সড়কের পাশে হোটেল, রেস্তোরা ও কফিশপ তৈরি হবে। সেখানে অনেক কর্মসংস্থানও হবে। আমার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর কর্মসংস্থানের বিষয়ে জোর প্রচেষ্টা চালানো হবে। আপনারা দোয়া করবেন, যাতে আমি এই কাজে সফল হতে পারি।
উল্লেখ্য, রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৯৩ কোটি ৪৮ লাখ টাকা ব্যয়ে তালাইমারী মোড় হতে কাটাখালী বাজার পর্যন্ত ৪.১০ কিলোমিটার অযান্ত্রিক যানবাহন লেনসহ ৬ লেন সড়ক নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। ৪.১০ কিলোমিটার সড়কের মাঝে ২ মিটারের সড়ক ডিভাইডার। উভয়পার্শ্বে ১০.৫ মিটার সড়ক। সড়কের উভয়পার্শ্বে ৩ মিটার অযান্ত্রিক যানবাহনের লেন ও উভয় পাশে ৩ মিটার ফুটপাত ও ড্রেন নির্মাণ কাজ চলছে। সড়কটিতে রাতে নাগরিকদের নিরাপদে চলাচল এবং নগরীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধিতে সড়কটিতে ১৫০টি সুদৃশ্য সড়কবাতির পোল বসানো হচ্ছে। ডেকোরেটিভ প্রতিটি পোলে থাকছে দুইটি করে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এলইডি লাইট। প্রথম পর্যায়ের রাবির প্রধান ফটকের সামনে থেকে চৌদ্দপাই ফায়ার সার্ভিস মোড় পর্যন্ত সড়কে ৫০টি সুদৃশ্য পোলে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতির উদ্বোধন করা হলো।
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

মিডিয়া তালিকাভুক্ত জাতীয় দৈনিক নববাণী পত্রিকার জন্য সকল জেলা উপজেলায় সংবাদ কর্মী আবশ্যকঃ- আগ্রহীরা আজই আবেদন করুন। মেইল: 24nababani@gmail.com
জনপ্রিয় সংবাদ

দ্রুত সময়ে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ বিষয়ে বিভাগীয় প্রধানদের সাথে রাসিক মেয়রের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

তুরস্কের সড়কবাতির আলোয় আলোকিত রাজশাহী নগরীর সড়ক

আপডেট সময় ০৫:০৭:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ নভেম্বর ২০২৩
তুরস্ক থেকে আনা সুদৃশ্য ও দৃষ্টিনন্দন পোল ও সড়কবাতির আলোয় আলোকিত হলো রাজশাহী মহানগরীর একটি সড়ক। নগরীর তালাইমারী মোড় হতে কাটাখালী বাজার পর্যন্ত সড়কটি সুদৃশ্য ও দৃষ্টিনন্দন পোলে সড়কবাতিতে আলোকায়নের অংশ হিসেবে প্রথম পর্যায়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে থেকে চৌদ্দপাই ফায়ার সার্ভিস মোড় পর্যন্ত আলোকায়নের উদ্বোধন করা হয়েছে।
রবিবার (২৬ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টায় নগরীর বিহাস আনুষ্ঠানিকভাবে সড়কটির আলোকায়নের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।
এ সময় রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আলোকায়নের দিক দিয়ে রাজশাহী শহরকে বিশ্বমানের শহরে পরিণত করা হচ্ছে। তুরস্ক থেকে আনা সুদৃশ্য ও ডেকোরেটিভ পোল ও সড়কবাতি নগরীর তালাইমারি থেকে কাটাখালি বাজার পর্যন্ত সড়কে স্থাপন করা হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে ৫০টি ডেকোরেটিভ পোলে আলোকায়ন করা হলো। আরো ১০০টি পোল জাহাজে করা আনা হচ্ছে। প্রতিটি পোলে সিটি কর্পোরেশনের মনোগ্রাম ও নাম রয়েছে। এই ধরনের পোল ও সড়কবাতি বাংলাদেশে আমরাই প্রথম এনেছি।
রাসিক মেয়র আরো বলেন, দিনের বেলা পরিচ্ছন্ন ঝকঝকে রাজশাহী আমরা উপহার দিয়েছি। আর রাতের রাজশাহী হচ্ছে আলোকসজ্জিত।এই আলোকায়নে নিরাপত্তা ও নগরীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি পাচ্ছে। সড়কটির কাজ সম্পন্ন শেষ হলে এটি দেখতে আসবেন অনেকে। সড়কের পাশে হোটেল, রেস্তোরা ও কফিশপ তৈরি হবে। সেখানে অনেক কর্মসংস্থানও হবে। আমার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর কর্মসংস্থানের বিষয়ে জোর প্রচেষ্টা চালানো হবে। আপনারা দোয়া করবেন, যাতে আমি এই কাজে সফল হতে পারি।
উল্লেখ্য, রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৯৩ কোটি ৪৮ লাখ টাকা ব্যয়ে তালাইমারী মোড় হতে কাটাখালী বাজার পর্যন্ত ৪.১০ কিলোমিটার অযান্ত্রিক যানবাহন লেনসহ ৬ লেন সড়ক নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। ৪.১০ কিলোমিটার সড়কের মাঝে ২ মিটারের সড়ক ডিভাইডার। উভয়পার্শ্বে ১০.৫ মিটার সড়ক। সড়কের উভয়পার্শ্বে ৩ মিটার অযান্ত্রিক যানবাহনের লেন ও উভয় পাশে ৩ মিটার ফুটপাত ও ড্রেন নির্মাণ কাজ চলছে। সড়কটিতে রাতে নাগরিকদের নিরাপদে চলাচল এবং নগরীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধিতে সড়কটিতে ১৫০টি সুদৃশ্য সড়কবাতির পোল বসানো হচ্ছে। ডেকোরেটিভ প্রতিটি পোলে থাকছে দুইটি করে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এলইডি লাইট। প্রথম পর্যায়ের রাবির প্রধান ফটকের সামনে থেকে চৌদ্দপাই ফায়ার সার্ভিস মোড় পর্যন্ত সড়কে ৫০টি সুদৃশ্য পোলে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতির উদ্বোধন করা হলো।