ঢাকা ০৭:৪৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তরুন সমাজকে মাদকের হাত থেকে বাঁচাতে হবে- বেগম রওশন এরশাদ

জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্টপোষক ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলের নেতা পল্লীমাতা বেগম রওশন এরশাদ-তরুন সমাজকে মাদকের হাত থেকে বাঁচানোর আহবান জানিয়ে বলেছেন, সর্বনাশা মাদক এখন শহর-বন্দর গ্রামে-গঞ্জে ছড়িয়ে পড়েছে। এই সর্বনাশা মাদকের ছোবলে আমাদের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্ম অন্ধকারে ধাবিত হচ্ছে। তারা নেশাগ্রস্থ হয়ে বিপদগামী হচ্ছে। নেশা করতে করতে শিক্ষার দিকে ধাবিত না হয়ে নিজের সুন্দর জীবন গড়ার পরিবর্তে নিজেদের অজান্তেই চলে যাচ্ছে অবক্ষয়ের দিকে। আমাদের অহংকার এই তরুন প্রজন্মকে মাদকমুক্ত পরিবেশে বসবাসের ব্যবস্থা করতে হবে। বেগম রওশন এরশাদ বলেন, দেশে যেভাবে মাদকের সয়লাব হয়ে গেছে, সরকারকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে মাদকমুক্ত করার জন্য কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর ও পুলিশ কর্মকর্তাদের কর্মতৎপরতা বাড়াতে হবে। প্রতিবেশী দেশ থেকে শ্রোতের মতো আসছে ইয়াবা, গাঁজা, ফেন্সিডিল হিরোইন, মদ ও আফিম। কর্মকর্তাদের চিহ্নিত করতে হবে কোন পথে কোন দেশ থেকে কিভাবে এই মাদক আসে সেই পথে যেন কোনভাবে মাদক না আসতে পারে, সেজন্য শক্ত অবস্থানে থাকতে হবে।

বিরোধী দলীয় নেতা আরো বলেন, মাদক এখন শুধুমাত্র ব্যক্তিগত সমস্যা নয়, সারাদেশের মানুষের সমস্যা। মাদকের গডফাদারদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। মাদক নির্মূলে শুধু সরকারই নয় দলমত নির্বিশেষে এগিয়ে আসতে হবে রাষ্ট্রকে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

রাজশাহীর গোদাগাড়ী বালু মহলের অনিয়মবন্ধে ও দুর্নীতি বন্ধে ডিসি বরাবর অভিযোগ

তরুন সমাজকে মাদকের হাত থেকে বাঁচাতে হবে- বেগম রওশন এরশাদ

আপডেট সময় ০৬:১৮:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ মে ২০২৩

জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্টপোষক ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলের নেতা পল্লীমাতা বেগম রওশন এরশাদ-তরুন সমাজকে মাদকের হাত থেকে বাঁচানোর আহবান জানিয়ে বলেছেন, সর্বনাশা মাদক এখন শহর-বন্দর গ্রামে-গঞ্জে ছড়িয়ে পড়েছে। এই সর্বনাশা মাদকের ছোবলে আমাদের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্ম অন্ধকারে ধাবিত হচ্ছে। তারা নেশাগ্রস্থ হয়ে বিপদগামী হচ্ছে। নেশা করতে করতে শিক্ষার দিকে ধাবিত না হয়ে নিজের সুন্দর জীবন গড়ার পরিবর্তে নিজেদের অজান্তেই চলে যাচ্ছে অবক্ষয়ের দিকে। আমাদের অহংকার এই তরুন প্রজন্মকে মাদকমুক্ত পরিবেশে বসবাসের ব্যবস্থা করতে হবে। বেগম রওশন এরশাদ বলেন, দেশে যেভাবে মাদকের সয়লাব হয়ে গেছে, সরকারকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে মাদকমুক্ত করার জন্য কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর ও পুলিশ কর্মকর্তাদের কর্মতৎপরতা বাড়াতে হবে। প্রতিবেশী দেশ থেকে শ্রোতের মতো আসছে ইয়াবা, গাঁজা, ফেন্সিডিল হিরোইন, মদ ও আফিম। কর্মকর্তাদের চিহ্নিত করতে হবে কোন পথে কোন দেশ থেকে কিভাবে এই মাদক আসে সেই পথে যেন কোনভাবে মাদক না আসতে পারে, সেজন্য শক্ত অবস্থানে থাকতে হবে।

বিরোধী দলীয় নেতা আরো বলেন, মাদক এখন শুধুমাত্র ব্যক্তিগত সমস্যা নয়, সারাদেশের মানুষের সমস্যা। মাদকের গডফাদারদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। মাদক নির্মূলে শুধু সরকারই নয় দলমত নির্বিশেষে এগিয়ে আসতে হবে রাষ্ট্রকে।