ঢাকা ০২:৩২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তথ্য অধিকার দিবস উপলক্ষ্যে বিভাগীয় প্রশাসনের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস ২০২৩ উদযাপন

আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস ২০২৩ উদযাপন উপলক্ষ্যে রাজশাহী বিভাগীয় প্রশাসনের আয়োজনে বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আজ (৯ অক্টোবর) সকালে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিভাগীয় কমিশনার বলেন, ব্রিটিশ আমলে এ উপমহাদেশে যে ১০০টির মতো দুর্ভিক্ষ হয়েছিল, অমর্ত্য সেন তার কারণ পুনঃযাচাই করে দেখিয়েছেন যে, সে সময় গণমাধ্যম যদি স্বাধীন হতো এবং অবাধ তথ্যপ্রবাহ থাকত, তাহলে দুর্ভিক্ষগুলো ঠেকানো সম্ভব হতো। আমাদের সিদ্ধান্ত যাতে ভুল না হয় সেজন্য সঠিক তথ্য জানতে হবে।

তিনি আরও বলেন, এক সময় পেট্রোল যার কাছে ছিল, সে ছিল সবচেয়ে শক্তিশালী। পেট্রোলের সময় শেষ হয়ে গেছে। কয়েকদিন পরে দেখা যাবে যার কাছে বেশি ডাটা আছে, সে সবচেয়ে শক্তিশালী। স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও সুশাসন নিশ্চিত করা তথ্য অধিকার আইনের উদ্দেশ্য উল্লেখ করে বিভাগীয় কমিশনার সকল দপ্তর প্রধানকে নিজ নিজ অফিসের ওয়েবসাইটের তথ্য হালনাগাদ করার অনুরোধ জানান।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. প্রদীপ কুমার পাÐে আলোচনা সভায় তথ্য অধিকার আইনের উৎপত্তি, বিকাশ ও আমাদের দেশে এর বর্তমান অবস্থা বিষয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার ড. মোঃ মোকছেদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন ডিআইজি কার্যালয়ের পুলিশ সুপার মোঃ আব্দুস সালাম এবং জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ।

বিভাগীয় পর্যায়ের বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের প্রধান, এনজিও প্রতিনিধি ও গণমাধ্যমকর্মীরা আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করেন।

আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

রাজশাহীতে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ শীর্ষক আলোচনা সভা

তথ্য অধিকার দিবস উপলক্ষ্যে বিভাগীয় প্রশাসনের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় ০৬:২৪:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৯ অক্টোবর ২০২৩

আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস ২০২৩ উদযাপন উপলক্ষ্যে রাজশাহী বিভাগীয় প্রশাসনের আয়োজনে বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আজ (৯ অক্টোবর) সকালে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিভাগীয় কমিশনার বলেন, ব্রিটিশ আমলে এ উপমহাদেশে যে ১০০টির মতো দুর্ভিক্ষ হয়েছিল, অমর্ত্য সেন তার কারণ পুনঃযাচাই করে দেখিয়েছেন যে, সে সময় গণমাধ্যম যদি স্বাধীন হতো এবং অবাধ তথ্যপ্রবাহ থাকত, তাহলে দুর্ভিক্ষগুলো ঠেকানো সম্ভব হতো। আমাদের সিদ্ধান্ত যাতে ভুল না হয় সেজন্য সঠিক তথ্য জানতে হবে।

তিনি আরও বলেন, এক সময় পেট্রোল যার কাছে ছিল, সে ছিল সবচেয়ে শক্তিশালী। পেট্রোলের সময় শেষ হয়ে গেছে। কয়েকদিন পরে দেখা যাবে যার কাছে বেশি ডাটা আছে, সে সবচেয়ে শক্তিশালী। স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও সুশাসন নিশ্চিত করা তথ্য অধিকার আইনের উদ্দেশ্য উল্লেখ করে বিভাগীয় কমিশনার সকল দপ্তর প্রধানকে নিজ নিজ অফিসের ওয়েবসাইটের তথ্য হালনাগাদ করার অনুরোধ জানান।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. প্রদীপ কুমার পাÐে আলোচনা সভায় তথ্য অধিকার আইনের উৎপত্তি, বিকাশ ও আমাদের দেশে এর বর্তমান অবস্থা বিষয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার ড. মোঃ মোকছেদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন ডিআইজি কার্যালয়ের পুলিশ সুপার মোঃ আব্দুস সালাম এবং জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ।

বিভাগীয় পর্যায়ের বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের প্রধান, এনজিও প্রতিনিধি ও গণমাধ্যমকর্মীরা আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করেন।