ঢাকা ০৭:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছেলের ধারালো ছুরির আঘাতে প্রাণ হারাল বাবা 

রাজশাহীর মোহনপুরে ছেলে আব্দুর রশিদ এর ছুরির আঘাতে ফজলু মন্ডল নিহত

 রাজশাহীর মোহনপুরে ছেলে আব্দুর রশিদ এর ছুরির আঘাতে ফজলু মন্ডল নিহত হয়েছেন।
গত বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে এগারো টার দিকে
থানা এলাকার আতানারায়নপুর (ভাঙ্গীপাড়া) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফজলু মন্ডল ওই গ্রামের মৃত ভোদল মন্ডলের ছেলে।
স্থানীয় ও থানা সুত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার অনুমান বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে নিহতের বসতবাড়ীর পাশে থাকা একটি ইউকালেকটার  তার বড় ছেলে আব্দুর রশিদ (৩৫) কাটতে চাইলে তার বাবা ফজলু মন্ডল (৬০) ও তার ছোট ছেলে বাশির উদ্দিন কালু (২৮) গাছটি কাটতে বাঁধা নিষেধ করে। এসময় বড় ছেলে আব্দুর রশিদ তার বাবা ও ছোট ভাইকে মারধোর করে এবং দৌড়ে গিয়ে তার শয়ন কক্ষ থেকে ধারালো ছুরি নিয়ে এসে বাবার পেটের বামপার্শ্বে স্বজোরে ঢুকিয়ে দিলে গুরুত্বর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে ফজলু মন্ডল। সে গুরুত্বর আহত অবস্থায় চিৎকার করলে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে রক্ত মাখা ছুরিসহ আঃ রশিদকে আটক করে।
ফজলুকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ভর্তি করে। খবর পেয়ে মোহনপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আসামীকে আলামতসহ আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত দশটার মারা যান ফজলু মন্ডল। এঘটনায় নিহতের ছোট ছেলে বাশির উদ্দিন কালু বাদি হয়ে তার বড় ভাই আব্দুর রশিদের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।
মোহনপুর থানা কর্মকর্তা ওসি হরিদাস মন্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘাতক ছেলেকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। লাশটি ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

রাজশাহীতে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ শীর্ষক আলোচনা সভা

ছেলের ধারালো ছুরির আঘাতে প্রাণ হারাল বাবা 

আপডেট সময় ০৮:০৩:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
 রাজশাহীর মোহনপুরে ছেলে আব্দুর রশিদ এর ছুরির আঘাতে ফজলু মন্ডল নিহত হয়েছেন।
গত বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে এগারো টার দিকে
থানা এলাকার আতানারায়নপুর (ভাঙ্গীপাড়া) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফজলু মন্ডল ওই গ্রামের মৃত ভোদল মন্ডলের ছেলে।
স্থানীয় ও থানা সুত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার অনুমান বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে নিহতের বসতবাড়ীর পাশে থাকা একটি ইউকালেকটার  তার বড় ছেলে আব্দুর রশিদ (৩৫) কাটতে চাইলে তার বাবা ফজলু মন্ডল (৬০) ও তার ছোট ছেলে বাশির উদ্দিন কালু (২৮) গাছটি কাটতে বাঁধা নিষেধ করে। এসময় বড় ছেলে আব্দুর রশিদ তার বাবা ও ছোট ভাইকে মারধোর করে এবং দৌড়ে গিয়ে তার শয়ন কক্ষ থেকে ধারালো ছুরি নিয়ে এসে বাবার পেটের বামপার্শ্বে স্বজোরে ঢুকিয়ে দিলে গুরুত্বর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে ফজলু মন্ডল। সে গুরুত্বর আহত অবস্থায় চিৎকার করলে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে রক্ত মাখা ছুরিসহ আঃ রশিদকে আটক করে।
ফজলুকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ভর্তি করে। খবর পেয়ে মোহনপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আসামীকে আলামতসহ আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত দশটার মারা যান ফজলু মন্ডল। এঘটনায় নিহতের ছোট ছেলে বাশির উদ্দিন কালু বাদি হয়ে তার বড় ভাই আব্দুর রশিদের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।
মোহনপুর থানা কর্মকর্তা ওসি হরিদাস মন্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘাতক ছেলেকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। লাশটি ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।