ঢাকা ০৫:১৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছাত্রকে ব’লা’ৎ’কা’রে’র অভিযোগে শিক্ষককে আ’ট’ক

১১ বছর বয়সী এক মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে  এক শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ করছে মাদ্রাসা কমিটি।
তিনি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরপুর তালুককানুপুর গ্রামের মজিবুর রহমানের পুত্র।
ঘটনাটি ঘটেছে,শনিবার (৮ জুন) দিবাগত ভোর রাতে গাইবান্ধা সদর উপজেলার রামচন্দ্র পুর ইউনিয়নের পোল্লাখাদা রইচ উদ্দিন মণ্ডল জোবেদা বেগম হাফেজিয়া কওমী এন্ড নূরানী একাডেমিক মডেল মাদ্রাসায়।
অভিযুক্ত মাহাবুবুর রহমান পোল্লাখাদা রইচ উদ্দিন মণ্ডল জোবেদা বেগম হাফেজিয়া কওমী এন্ড নূরানী একাডেমিক মডেল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক।
মাদ্রাসা সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা যায়, শিক্ষক মাহাবুবুর রহমান প্রায় দুই/আড়াই মাস ধরে পোল্লাখাদা রইচ উদ্দিন মণ্ডল জোবেদা বেগম হাফেজিয়া কওমী এন্ড নূরানী একাডেমিক মডেল মাদ্রাসায় সহকারী শিক্ষক পদে চাকুরী করে আসছেন। বাড়ি দূরে হওয়ায় এ মাদ্রাসায় থাকেন। অন্যান্য দিনের ন্যায় গত শুক্রবার দিবাগত রাতে ওই ছাত্র খাওয়া দাওয়া শেষে মাদ্রাসা কক্ষে ঘুমিয়ে পড়লে শিক্ষক মাহাবুবুর রহমানও ওই ছাত্রের পাশে ঘুমিয়ে পড়েন। এ সুযোগে রাত ভোরের দিকে ওই ছাত্রকে বলাৎকার করেন। ওই ছাত্র সকাল হলে বিষয়টি সহপাঠীদেক না জানিয়ে সরাসরি তার মাকে অবগত করলে মা এসে বিচারের দাবীতে মাদ্রাসা কমিটির নিকট মৌখিক অভিযোগ করেন। এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে মাদ্রাসা কমিটির লোকজন জরুরী বৈঠকে উভয় পক্ষের জবানবন্ধি শেষে অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক রাখেন। এরপর খবর পেয়ে গাইবান্ধা সদর থানার এসআই মমিনুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে মাদ্রাসা কমিটির লোকজন শিক্ষক মাহাবুবুর রহমানকে সোপর্দ করেন।
এ সময় রামচন্দ্র পুর ইউপি চেয়ারম্যান মোছাব্বির হোসেনসহ স্থানীয় ইউপি সদস্য ও এলাকার গন্যমান্য লোকজন উপস্থিত ছিলেন।
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

Daily Naba Bani

মিডিয়া তালিকাভুক্ত জাতীয় দৈনিক নববাণী পত্রিকার জন্য সকল জেলা উপজেলায় সংবাদ কর্মী আবশ্যকঃ- আগ্রহীরা আজই আবেদন করুন। মেইল: 24nababani@gmail.com
জনপ্রিয় সংবাদ

সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ভোগান্তিতে ৮ লক্ষাধিক মানুষ

ছাত্রকে ব’লা’ৎ’কা’রে’র অভিযোগে শিক্ষককে আ’ট’ক

আপডেট সময় ০৭:২০:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০২৪
১১ বছর বয়সী এক মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে  এক শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ করছে মাদ্রাসা কমিটি।
তিনি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরপুর তালুককানুপুর গ্রামের মজিবুর রহমানের পুত্র।
ঘটনাটি ঘটেছে,শনিবার (৮ জুন) দিবাগত ভোর রাতে গাইবান্ধা সদর উপজেলার রামচন্দ্র পুর ইউনিয়নের পোল্লাখাদা রইচ উদ্দিন মণ্ডল জোবেদা বেগম হাফেজিয়া কওমী এন্ড নূরানী একাডেমিক মডেল মাদ্রাসায়।
অভিযুক্ত মাহাবুবুর রহমান পোল্লাখাদা রইচ উদ্দিন মণ্ডল জোবেদা বেগম হাফেজিয়া কওমী এন্ড নূরানী একাডেমিক মডেল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক।
মাদ্রাসা সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা যায়, শিক্ষক মাহাবুবুর রহমান প্রায় দুই/আড়াই মাস ধরে পোল্লাখাদা রইচ উদ্দিন মণ্ডল জোবেদা বেগম হাফেজিয়া কওমী এন্ড নূরানী একাডেমিক মডেল মাদ্রাসায় সহকারী শিক্ষক পদে চাকুরী করে আসছেন। বাড়ি দূরে হওয়ায় এ মাদ্রাসায় থাকেন। অন্যান্য দিনের ন্যায় গত শুক্রবার দিবাগত রাতে ওই ছাত্র খাওয়া দাওয়া শেষে মাদ্রাসা কক্ষে ঘুমিয়ে পড়লে শিক্ষক মাহাবুবুর রহমানও ওই ছাত্রের পাশে ঘুমিয়ে পড়েন। এ সুযোগে রাত ভোরের দিকে ওই ছাত্রকে বলাৎকার করেন। ওই ছাত্র সকাল হলে বিষয়টি সহপাঠীদেক না জানিয়ে সরাসরি তার মাকে অবগত করলে মা এসে বিচারের দাবীতে মাদ্রাসা কমিটির নিকট মৌখিক অভিযোগ করেন। এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে মাদ্রাসা কমিটির লোকজন জরুরী বৈঠকে উভয় পক্ষের জবানবন্ধি শেষে অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক রাখেন। এরপর খবর পেয়ে গাইবান্ধা সদর থানার এসআই মমিনুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে মাদ্রাসা কমিটির লোকজন শিক্ষক মাহাবুবুর রহমানকে সোপর্দ করেন।
এ সময় রামচন্দ্র পুর ইউপি চেয়ারম্যান মোছাব্বির হোসেনসহ স্থানীয় ইউপি সদস্য ও এলাকার গন্যমান্য লোকজন উপস্থিত ছিলেন।