ঢাকা ০২:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কেশরহাটে বণিক সমিতির নির্বাচন কারচুপির অভিযোগ তুলে পুনরায় ভোট গণনার দাবি প্রার্থীর

কেশরহাটে বণিক সমিতির নির্বাচন

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট বাজার বণিক সমিতির নির্বাচনে সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ভোট গণনায় কারচুপির অভিযোগ উঠেছে। পুনরায় ভোট গণনার দাবিতে প্রার্থী মো.তাহসিন বিল্লাহ তাপস কেশরহাট বণিক সমিতির দায়িত্বরত প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
বৃহস্পতিবার (৮ জুন) রাত পৌনে ৮ টার সময় ভোটের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এরপর রাতেই ভোট গণনার কারচুপির অভিযোগ তুলে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন টিউবওয়েল প্রতীকের পরাজিত প্রার্থী মো.তাহসিন বিল্লাহ তাপস। এরপর সাংবাদিকদের সামনে ভোট গণনায় কারচুপির অভিযোগ তুলে ধরে বক্তব্য প্রদান করেন তিনি।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৮ জুন) মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট বাজার বণিক সমিতির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক ও কার্য নির্বাহী সদস্য পদে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে সাংগঠনিক সম্পাদক পদে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেন মো. তাহসিন বিল্লাহ তাপস। ভোট গ্রহণ শেষে ফলাফলে কলস মার্কা প্রতীকের প্রার্থী মো. হাবিবুর রহমান মিঠু কাজীকে ১ ভোটে বিজয়ী দেখিয়ে ফলাফল ঘোষনা করেন নির্বাচন কমিশনার ও সংশ্লিষ্ট নির্বাচন পরিচালনা কমিটি। পরবর্তীতে ফলাফল পর্যালোচনা করে জানা যায় নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৪৫ জন। এর মধ্যে নির্বাচনে ৯৪৭ জন ভোটার তাদের ভোট প্রদান করেন। বিজয় কলস মার্কা প্রতীকে প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা দেখানো হয়েছে ৪৪৭
ভোট। টিউবওয়েল মার্কা প্রতীকে প্রাপ্ত ভোট দেখানো হয়েছে ৪৪৬ ভোট। নষ্ট ভোটের সংখ্যা ২৬টি। ভোটের ফলাফল হিসেব করে দেখায় যায় ২৮ টি ভোট গোপন করে সাংগঠনিক পদে ভোটের ফলাফল ঘোষণা করেন। ওই ২৮টি ভোটের কোনো খোঁজ নেই। বিষয়টি প্রকাশ পাওয়ার সাথে সাথে পরাজিত প্রার্থী তাহসিন বিল্লাহ তাপস তার সমর্থীত ভোটাদের নিয়ে কেশরহাট বাজার বণিক সমিতির প্রধান নির্বাচন কমিশনার রুস্তম আলী প্রামানিকের ব্যক্তিগত চেম্বারে গিয়ে ২৮টি ভোট গোপন রাখার কারণ জানতে চান। ওই সময় উভয়পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করতে থাকে। এক পর্যায়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার প্রার্থীকে পুনরায় ভোট গণনার জন্য আবেদন করতে বলেন এবং রাতেই লিখিত আবেদন করেন  তাহসিন বিল্লাহ তাপস।
এবিষয়ে জানতে চাইলে কেশরহাট বাজার বণিক সমিতির নির্বাচনে দায়িত্বরত প্রধান নির্বাচন কমিশনার মো. রুস্তম আলী প্রামাণিক বলেন, ‘কেশরহাট বাজার বণিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক পদে পরাজিত প্রার্থী ভোট পুনরায় গণনার দাবিতে একটি লিখিত আবেদন দিয়েছেন প্রার্থী ও সমর্থকেরা। বিষয়টি নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সাথে আলোচনা করে ভোট পুনরায় গণনার ব্যবস্থা করা হবে।’
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে – ডেপুটি স্পীকার

কেশরহাটে বণিক সমিতির নির্বাচন কারচুপির অভিযোগ তুলে পুনরায় ভোট গণনার দাবি প্রার্থীর

আপডেট সময় ০৭:২৫:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৯ জুন ২০২৩
রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট বাজার বণিক সমিতির নির্বাচনে সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ভোট গণনায় কারচুপির অভিযোগ উঠেছে। পুনরায় ভোট গণনার দাবিতে প্রার্থী মো.তাহসিন বিল্লাহ তাপস কেশরহাট বণিক সমিতির দায়িত্বরত প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
বৃহস্পতিবার (৮ জুন) রাত পৌনে ৮ টার সময় ভোটের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এরপর রাতেই ভোট গণনার কারচুপির অভিযোগ তুলে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন টিউবওয়েল প্রতীকের পরাজিত প্রার্থী মো.তাহসিন বিল্লাহ তাপস। এরপর সাংবাদিকদের সামনে ভোট গণনায় কারচুপির অভিযোগ তুলে ধরে বক্তব্য প্রদান করেন তিনি।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৮ জুন) মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট বাজার বণিক সমিতির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক ও কার্য নির্বাহী সদস্য পদে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে সাংগঠনিক সম্পাদক পদে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেন মো. তাহসিন বিল্লাহ তাপস। ভোট গ্রহণ শেষে ফলাফলে কলস মার্কা প্রতীকের প্রার্থী মো. হাবিবুর রহমান মিঠু কাজীকে ১ ভোটে বিজয়ী দেখিয়ে ফলাফল ঘোষনা করেন নির্বাচন কমিশনার ও সংশ্লিষ্ট নির্বাচন পরিচালনা কমিটি। পরবর্তীতে ফলাফল পর্যালোচনা করে জানা যায় নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৪৫ জন। এর মধ্যে নির্বাচনে ৯৪৭ জন ভোটার তাদের ভোট প্রদান করেন। বিজয় কলস মার্কা প্রতীকে প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা দেখানো হয়েছে ৪৪৭
ভোট। টিউবওয়েল মার্কা প্রতীকে প্রাপ্ত ভোট দেখানো হয়েছে ৪৪৬ ভোট। নষ্ট ভোটের সংখ্যা ২৬টি। ভোটের ফলাফল হিসেব করে দেখায় যায় ২৮ টি ভোট গোপন করে সাংগঠনিক পদে ভোটের ফলাফল ঘোষণা করেন। ওই ২৮টি ভোটের কোনো খোঁজ নেই। বিষয়টি প্রকাশ পাওয়ার সাথে সাথে পরাজিত প্রার্থী তাহসিন বিল্লাহ তাপস তার সমর্থীত ভোটাদের নিয়ে কেশরহাট বাজার বণিক সমিতির প্রধান নির্বাচন কমিশনার রুস্তম আলী প্রামানিকের ব্যক্তিগত চেম্বারে গিয়ে ২৮টি ভোট গোপন রাখার কারণ জানতে চান। ওই সময় উভয়পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করতে থাকে। এক পর্যায়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার প্রার্থীকে পুনরায় ভোট গণনার জন্য আবেদন করতে বলেন এবং রাতেই লিখিত আবেদন করেন  তাহসিন বিল্লাহ তাপস।
এবিষয়ে জানতে চাইলে কেশরহাট বাজার বণিক সমিতির নির্বাচনে দায়িত্বরত প্রধান নির্বাচন কমিশনার মো. রুস্তম আলী প্রামাণিক বলেন, ‘কেশরহাট বাজার বণিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক পদে পরাজিত প্রার্থী ভোট পুনরায় গণনার দাবিতে একটি লিখিত আবেদন দিয়েছেন প্রার্থী ও সমর্থকেরা। বিষয়টি নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সাথে আলোচনা করে ভোট পুনরায় গণনার ব্যবস্থা করা হবে।’