ঢাকা ০২:১৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কেএমপি’র লবণচরা থানাধীন নিজখামারে গুলি বর্ষণের ঘটনায় ব্যবহৃত  ০১ (এক) টি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র ওয়ান শুটার গান উদ্ধার সহ ০২ (দুই) জন আসামী গ্রেফতারঃ  

কেএমপি'র লবণচরা থানাধীন নিজখামারে গুলি বর্ষণের ঘটনায় ব্যবহৃত ০১ (এক) টি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র ওয়ান শুটার গান উদ্ধার সহ ০২ (দুই) জন আসামী গ্রেফতারঃ

লবণচরা থানার মামলা নং-০৬, তারিখ-০৪/১০/২০২৩ খ্রিঃ, ধারা- ৩০৭/৩২৬/৫০৬(২)/৩৪ পেনাল কোড এর ভিকটিম ১) মোঃ শাকিল (৩৮) ও পথচারী ভিকটিম ২) শিহাব হোসেন (৩৫) কে অত্র মামলার এজাহারনামীয় আসামী ১) লাভলু @ কালা লাভলু (৪২), পিতা-মোঃ সাত্তার, সাং- গোবরচাকা, ২) সাদ্দাম মল্লিক (৪১), পিতা- হেমায়েত মল্লিক, সাং- গোবরচাকা মল্লিক বাড়ী, উভয় থানা-সোনাডাঙ্গা, খুলনা মহানগরী গত ইং-০৪/১০/২০২৩ তারিখ বেলা অনুমান ১৩.২০ হইতে ১৩.২৫ ঘটিকা পর্যন্ত সময়ে লবণচরা থানাধীন নিজখামার প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন অশোক চার্জিং পয়েন্ট এর সামনে পাঁকা রাস্তার উপর হইতে ভিকটিমকে হত্যার উদ্দেশ্যে করে গুলি করে। উক্ত গুলি ভিকটিমের পিঠের ডান পাশে মাজায়  লাগে এবং একটি গুলি ডান হাতের আঙ্গুল ছুয়ে বেরিয়ে যেয়ে পথচারী ভিকটিম শিহাব হোসেন (৩৫) এর ডান পায়ের হাটুর নিচে গুলিবিদ্ধ হয়। উক্ত মামলার ঘটনায় ০২ নং এজাহারনামীয় গ্রেফতারকৃত আসামী ১) মোঃ সাদ্দাম হোসেন মল্লিক রাহাত (৪১) এবং ২) মোঃ মনোয়ার হোসেন টগর (২৬) দ্বয়কে গ্রেফতার করে বিধি মোতাবেক দফায় দফায় ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে আসামীদ্বয় স্বীকার করে যে, উক্ত আসামীদ্বসহ তাহার গ্রুপের অন্যান্য আসামীরা খুলনা মহানগরী এলাকায় আগ্নেয়াস্ত্র  ও দেশীয় অস্ত্র ব্যবহার করে সাধারণ মানুষেকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে সাধারণ জনগণের নিকট হতে চাঁদাদাবীসহ জোর পূর্বক অর্থ আদায়, বিভিন্ন মানুষকে হত্যার চেষ্টা, মাদক ব্যবসা সহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কাজে চাপাতি, চাইনিজ কুড়ালসহ আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করে আসছেন। আসামীদ্বয়কে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেন যে, লবণচরা থানার মামলা নং-০৬, তারিখ-০৪/১০/২০২৩ খ্রিঃ, ধারা- ৩০৭/৩২৬/৫০৬(২)/৩৪ পেনাল কোড এর মামলায় ভিকটিমকে পূর্ব শক্রতার জের ধরে উক্ত মামলার ঘটনাস্থল লবণচরা থানাধীন নিজখামার প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন অশোক চার্জিং পয়েন্ট এর সামনে পাঁকা রাস্তার উপর ভিকটিমকে হত্যার উদ্দেশ্যে আসামী লাভলু @ কালা লাভলু সহ উল্লেখিত আসামীদ্বয় গুলি করেন এবং তাদের গুলিতে ভিকটিমসহ একজন পথচারী ও গুরুতর আহত হন। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাদের ধরার জন্য বেরিকেড দেওয়ার চেষ্টা করলে উক্ত আসামীদ্বয় মোটরসাইকেল যোগে পালানোর সময় লবণচরা থানাধীন নিজখামার সাকিনে নিজখামার মেইন রোড মিন্টু রানী সাহার বাড়ি হইতে অনুমান ১০০ মিটার দক্ষিণে রাঁস্তার পশ্চিম পাশে কচা গাছের গোড়ায় ঝোপঝাড়ের মধ্যে আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি ফেলে পালিয়ে যায়।
আসামীদ্বয় এর নিকট হতে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে লবণচরা থানা পুলিশের একটি চৌকস টিম থানার জিডি নং-৫৮৩, তাং-১১/১০/২০২৩ খ্রিঃ মূলে আসামীদ্বয়কে সঙ্গে নিয়া আসামীদ্বয়ের দেওয়া তথ্য মতে গত ইং-১১/১০/২০২৩ তারিখ রাত ২৩.৫০ ঘটিকার সময় লবণচরা থানাধীন নিজখামার সাকিনে নিজখামার মেইন রোড মিন্টু রানী সাহার বাড়ি হইতে অনুমান ১০০ মিটার দক্ষিণে রাঁস্তার পশ্চিম পাশে উপস্থিত হয়। তখন উপস্থিত উক্ত এলাকার জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় নিরপেক্ষ স্বাক্ষীদের সম্মুখে ধৃত আসামী মোঃ সাদ্দাম হোসেন মল্লিক রাহাত (৪১) ঝোপঝাড়ের মধ্য হতে খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে আসামী মোঃ সাদ্দাম হোসেন মল্লিক রাহাত এর দেখানো ও নিজ হাতে বাহির করে দেওয়া মতে পর্যাপ্ত আলোতে উল্লেখিত স্থানে গুলি বর্ষণের ঘটনায় ব্যবহৃত  ফেলে রাখা আলামত ০১ (এক) টি দেশীয় তৈরি সচল আগ্নেয়াস্ত্র (ওয়ান শুটার গান) উদ্ধারপূর্বক ইং-১২/১০/২০২৩ তারিখ রাত ০০.৩০ ঘটিকার সময় জব্দ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে আসামীদ্বয়কে আরো জানায় যে, উল্লেখিত আলামত দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র (ওয়ান শুটার গান) টি তারা লবণচরা থানার মামলা নং-০৬, তারিখ-০৪/১০/২০২৩ খ্রিঃ, ধারা- ৩০৭/৩২৬/৫০৬(২)/৩৪ পেনাল কোড মামলার ভিকটিমদ্বয়কে গুলি করার জন্য ব্যবহার করেছিল। গ্রেফতারকৃত আসামী ১) মোঃ সাদ্দাম হোসেন মল্লিক রাহাত (৪১) এবং ২) মোঃ মনোয়ার হোসেন টগর (২৬) দ্বয় সোনাডাঙ্গা মডেল থানা এলাকাসহ খুলনা মহানগরী এলাকার অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী নূর আজিম গ্রুপের সক্রিয় সদস্য। গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয় বিরুদ্ধে অবৈধ অস্ত্র নিজ হেফাজত ও নিয়ন্ত্রণে রাখায় জন্য তাদের বিরুদ্ধে লবণচরা থানায় অস্ত্র আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে।
এছাড়াও সিডিএমএস পর্যালোচনা করে গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ সাদ্দাম হোসেন মল্লিক রাহাত (৪১) এর বিরুদ্ধে কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় ০৬ টি মামলা পাওয়া যায়। যথাক্রমেঃ- ১) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার এফআইআর নং-০৬, তারিখ- ২৬/০১/২০১৩; ধারা-৩৬৪/৩০২/৩৪ পেনাল কোড-১৮৬০; ২) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার এফআইআর নং-২৩/৩৮৯, তারিখ- ১৭ অক্টোবর, ২০১৭, ধারা- ১৯(১) এর ৯(ক) ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন; ৩) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার এফআইআর নং-৯/৯৩, তারিখ- ২৯ মে, ২০২০: ধারা- ১০ ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩; ৪) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার এফআইআর নং-৪, তারিখ- ০৪ ডিসেম্বর, ২০২২; ধারা-15(3)/25-D ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইন ; তৎসহ ৪ ১৯০৮ সালের বিস্ফোরক দ্রব্য আইন; ৫) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার জিডি নং-১৩১৩/২০২০, তারিখ- ২৫ নভেম্বর, ২০২০, সময়- ২০:৪৫ ঘটিকা এবং ৬) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার এফআইআর নং-২৪, তারিখ- ২৩ আগস্ট, ২০১৩; ধারা- ৩২৩/৩২৪/৩২৫/৩০৭/৩৭৯ /৩৫৪/৫০৬(২) পেনাল কোড-১৮৬০
গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ মনোয়ার হোসেন টগর (২৬) এর বিরুদ্ধে কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় ০২ টি মামলা পাওয়া যায়। যথাক্রমেঃ- ১) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার মামলা নং-০২, তাং-০৪/০৭/২০১৫ খ্রিঃ, ধারা-আইন শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) আইন ২০০২ (সংশোধনী-২০০৯) এর ৪/৫ এবং ২) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার মামলা নং-২৭,
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

Daily Naba Bani

মিডিয়া তালিকাভুক্ত জাতীয় দৈনিক নববাণী পত্রিকার জন্য সকল জেলা উপজেলায় সংবাদ কর্মী আবশ্যকঃ- আগ্রহীরা আজই আবেদন করুন। মেইল: 24nababani@gmail.com
জনপ্রিয় সংবাদ

সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ভোগান্তিতে ৮ লক্ষাধিক মানুষ

কেএমপি’র লবণচরা থানাধীন নিজখামারে গুলি বর্ষণের ঘটনায় ব্যবহৃত  ০১ (এক) টি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র ওয়ান শুটার গান উদ্ধার সহ ০২ (দুই) জন আসামী গ্রেফতারঃ  

আপডেট সময় ০৯:০৯:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৬ অক্টোবর ২০২৩
লবণচরা থানার মামলা নং-০৬, তারিখ-০৪/১০/২০২৩ খ্রিঃ, ধারা- ৩০৭/৩২৬/৫০৬(২)/৩৪ পেনাল কোড এর ভিকটিম ১) মোঃ শাকিল (৩৮) ও পথচারী ভিকটিম ২) শিহাব হোসেন (৩৫) কে অত্র মামলার এজাহারনামীয় আসামী ১) লাভলু @ কালা লাভলু (৪২), পিতা-মোঃ সাত্তার, সাং- গোবরচাকা, ২) সাদ্দাম মল্লিক (৪১), পিতা- হেমায়েত মল্লিক, সাং- গোবরচাকা মল্লিক বাড়ী, উভয় থানা-সোনাডাঙ্গা, খুলনা মহানগরী গত ইং-০৪/১০/২০২৩ তারিখ বেলা অনুমান ১৩.২০ হইতে ১৩.২৫ ঘটিকা পর্যন্ত সময়ে লবণচরা থানাধীন নিজখামার প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন অশোক চার্জিং পয়েন্ট এর সামনে পাঁকা রাস্তার উপর হইতে ভিকটিমকে হত্যার উদ্দেশ্যে করে গুলি করে। উক্ত গুলি ভিকটিমের পিঠের ডান পাশে মাজায়  লাগে এবং একটি গুলি ডান হাতের আঙ্গুল ছুয়ে বেরিয়ে যেয়ে পথচারী ভিকটিম শিহাব হোসেন (৩৫) এর ডান পায়ের হাটুর নিচে গুলিবিদ্ধ হয়। উক্ত মামলার ঘটনায় ০২ নং এজাহারনামীয় গ্রেফতারকৃত আসামী ১) মোঃ সাদ্দাম হোসেন মল্লিক রাহাত (৪১) এবং ২) মোঃ মনোয়ার হোসেন টগর (২৬) দ্বয়কে গ্রেফতার করে বিধি মোতাবেক দফায় দফায় ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে আসামীদ্বয় স্বীকার করে যে, উক্ত আসামীদ্বসহ তাহার গ্রুপের অন্যান্য আসামীরা খুলনা মহানগরী এলাকায় আগ্নেয়াস্ত্র  ও দেশীয় অস্ত্র ব্যবহার করে সাধারণ মানুষেকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে সাধারণ জনগণের নিকট হতে চাঁদাদাবীসহ জোর পূর্বক অর্থ আদায়, বিভিন্ন মানুষকে হত্যার চেষ্টা, মাদক ব্যবসা সহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কাজে চাপাতি, চাইনিজ কুড়ালসহ আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করে আসছেন। আসামীদ্বয়কে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেন যে, লবণচরা থানার মামলা নং-০৬, তারিখ-০৪/১০/২০২৩ খ্রিঃ, ধারা- ৩০৭/৩২৬/৫০৬(২)/৩৪ পেনাল কোড এর মামলায় ভিকটিমকে পূর্ব শক্রতার জের ধরে উক্ত মামলার ঘটনাস্থল লবণচরা থানাধীন নিজখামার প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন অশোক চার্জিং পয়েন্ট এর সামনে পাঁকা রাস্তার উপর ভিকটিমকে হত্যার উদ্দেশ্যে আসামী লাভলু @ কালা লাভলু সহ উল্লেখিত আসামীদ্বয় গুলি করেন এবং তাদের গুলিতে ভিকটিমসহ একজন পথচারী ও গুরুতর আহত হন। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাদের ধরার জন্য বেরিকেড দেওয়ার চেষ্টা করলে উক্ত আসামীদ্বয় মোটরসাইকেল যোগে পালানোর সময় লবণচরা থানাধীন নিজখামার সাকিনে নিজখামার মেইন রোড মিন্টু রানী সাহার বাড়ি হইতে অনুমান ১০০ মিটার দক্ষিণে রাঁস্তার পশ্চিম পাশে কচা গাছের গোড়ায় ঝোপঝাড়ের মধ্যে আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি ফেলে পালিয়ে যায়।
আসামীদ্বয় এর নিকট হতে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে লবণচরা থানা পুলিশের একটি চৌকস টিম থানার জিডি নং-৫৮৩, তাং-১১/১০/২০২৩ খ্রিঃ মূলে আসামীদ্বয়কে সঙ্গে নিয়া আসামীদ্বয়ের দেওয়া তথ্য মতে গত ইং-১১/১০/২০২৩ তারিখ রাত ২৩.৫০ ঘটিকার সময় লবণচরা থানাধীন নিজখামার সাকিনে নিজখামার মেইন রোড মিন্টু রানী সাহার বাড়ি হইতে অনুমান ১০০ মিটার দক্ষিণে রাঁস্তার পশ্চিম পাশে উপস্থিত হয়। তখন উপস্থিত উক্ত এলাকার জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় নিরপেক্ষ স্বাক্ষীদের সম্মুখে ধৃত আসামী মোঃ সাদ্দাম হোসেন মল্লিক রাহাত (৪১) ঝোপঝাড়ের মধ্য হতে খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে আসামী মোঃ সাদ্দাম হোসেন মল্লিক রাহাত এর দেখানো ও নিজ হাতে বাহির করে দেওয়া মতে পর্যাপ্ত আলোতে উল্লেখিত স্থানে গুলি বর্ষণের ঘটনায় ব্যবহৃত  ফেলে রাখা আলামত ০১ (এক) টি দেশীয় তৈরি সচল আগ্নেয়াস্ত্র (ওয়ান শুটার গান) উদ্ধারপূর্বক ইং-১২/১০/২০২৩ তারিখ রাত ০০.৩০ ঘটিকার সময় জব্দ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে আসামীদ্বয়কে আরো জানায় যে, উল্লেখিত আলামত দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র (ওয়ান শুটার গান) টি তারা লবণচরা থানার মামলা নং-০৬, তারিখ-০৪/১০/২০২৩ খ্রিঃ, ধারা- ৩০৭/৩২৬/৫০৬(২)/৩৪ পেনাল কোড মামলার ভিকটিমদ্বয়কে গুলি করার জন্য ব্যবহার করেছিল। গ্রেফতারকৃত আসামী ১) মোঃ সাদ্দাম হোসেন মল্লিক রাহাত (৪১) এবং ২) মোঃ মনোয়ার হোসেন টগর (২৬) দ্বয় সোনাডাঙ্গা মডেল থানা এলাকাসহ খুলনা মহানগরী এলাকার অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী নূর আজিম গ্রুপের সক্রিয় সদস্য। গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয় বিরুদ্ধে অবৈধ অস্ত্র নিজ হেফাজত ও নিয়ন্ত্রণে রাখায় জন্য তাদের বিরুদ্ধে লবণচরা থানায় অস্ত্র আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে।
এছাড়াও সিডিএমএস পর্যালোচনা করে গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ সাদ্দাম হোসেন মল্লিক রাহাত (৪১) এর বিরুদ্ধে কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় ০৬ টি মামলা পাওয়া যায়। যথাক্রমেঃ- ১) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার এফআইআর নং-০৬, তারিখ- ২৬/০১/২০১৩; ধারা-৩৬৪/৩০২/৩৪ পেনাল কোড-১৮৬০; ২) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার এফআইআর নং-২৩/৩৮৯, তারিখ- ১৭ অক্টোবর, ২০১৭, ধারা- ১৯(১) এর ৯(ক) ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন; ৩) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার এফআইআর নং-৯/৯৩, তারিখ- ২৯ মে, ২০২০: ধারা- ১০ ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩; ৪) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার এফআইআর নং-৪, তারিখ- ০৪ ডিসেম্বর, ২০২২; ধারা-15(3)/25-D ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইন ; তৎসহ ৪ ১৯০৮ সালের বিস্ফোরক দ্রব্য আইন; ৫) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার জিডি নং-১৩১৩/২০২০, তারিখ- ২৫ নভেম্বর, ২০২০, সময়- ২০:৪৫ ঘটিকা এবং ৬) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার এফআইআর নং-২৪, তারিখ- ২৩ আগস্ট, ২০১৩; ধারা- ৩২৩/৩২৪/৩২৫/৩০৭/৩৭৯ /৩৫৪/৫০৬(২) পেনাল কোড-১৮৬০
গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ মনোয়ার হোসেন টগর (২৬) এর বিরুদ্ধে কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় ০২ টি মামলা পাওয়া যায়। যথাক্রমেঃ- ১) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার মামলা নং-০২, তাং-০৪/০৭/২০১৫ খ্রিঃ, ধারা-আইন শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) আইন ২০০২ (সংশোধনী-২০০৯) এর ৪/৫ এবং ২) কেএমপি এর সোনাডাঙ্গা থানার মামলা নং-২৭,