ঢাকা ০৯:৩২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আগামী ০৯ তারিখ পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন; দ্বিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা

Oplus_0

আগামী ৯ জুন উৎসব মূখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ৬ষ্ঠ  পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী ৬ প্রার্থীর দ্বিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা রয়েছে বলে সাধারণ ভোটাররা জানিয়েছে। মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক জেলা পরিষদ সদস্য শেখ কামরুল হাসান টিপু ও চিংড়ি মাছ প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আনন্দ মোহন বিশ্বাস এর সাথে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হলেও ক্লিন ইমেজের প্রার্থী হিসেবে শেষ মুহূর্তে আনন্দ বিশ্বাস এগিয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করছেন নির্বাচন বিশ্লেষকদের অনেকেই।
ঘূর্ণিঝড় রেমাল এর  কারণে স্থগিত হওয়া পাইকগাছা উপজেলা পরিষদের নির্বাচন আজ ৯ ই জুন রবিবার অনুষ্ঠিত হবে । এজন্য  শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাত থেকে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা বন্ধ হয়ে গেছে  ।ফলে শেষ মুহূর্তে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনায় সকাল থেকে গভীর রাত অবধী ব্যস্ত সময় পার করেছেন প্রার্থীরা। প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীরা যার যার অবস্থান থেকে জোর প্রচারনা চালিয়েছেন। ভোটারদের দিয়েছেন নানান প্রতিশ্রতি। তবে ভোটাররা বলছেন, সৎ, যোগ্য, পরোপকারী ও বিপদে যাকে কাছে পাবেন এবং পরিষদকে সুন্দর ভাবে পরিচালনা করতে পারেন এমন প্রার্থীকেই বিজয়ী করবেন বলে জানান তারা।  উপজেলা চেয়ারম্যান পদে অন্য প্রার্থীদের মধ্যে  আনারস প্রতিক নিয়ে আ’লীগ নেতা কৃষ্ণ পদ মন্ডল,দোয়াত কলম প্রতীক নিয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এডভোকেট শেখ আবুল কালাম আজাদ,  কাপ পিরিচ প্রতিক নিয়ে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীরমুক্তি যোদ্ধা এ্যাড. স ম বাবর আলীর পুত্র  স ম শিবলী নোমান রানা  ও হেলিকপ্টার প্রতিক নিয়ে  আসাদুল বিশ্বাস নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।   এদিকে নির্বাচন বিশ্লেষকরা মনে করছেন, জাতীয় নির্বাচনে প্রতীক মূল ফ্যাক্ট হলেও এবারের  উপজেলা পরিষদ  নির্বাচনে রাজনৈতিক পরিচয়ের পাশাপাশি ব্যক্তি ইমেজ বিশেষ গুরুত্ব বহন করবে। সেক্ষেত্রে নম্র ভদ্র ও ক্লিন ইমেজের প্রার্থীরা সাধারণ ভোটারদের কাছে গ্রহণ যোগ্যতা পাবে। এর পাশাপাশি ভোটার উপস্থিতির উপর ভোটের ফলাফল অনেকটা নির্ভর করবে বলে মনে করছেন নির্বাচন বিশ্লেষকরা। গুরুত্বপূর্ণ এ নির্বাচনে  উপজেলা  ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৯ জন প্রার্থী। তারা হলেন বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান   শিয়াবুদ্দীন ফিরোজ বুলু (তালা),সিরাজুল ইসলাম (মাইক),বজলুর রহমান ️(টিয়া পাখি),
স. ম. আব্দুল ওয়াহাব বাবলু (পালকি),এস. এম. হাবিবুর রহমান️ (চশমা),সুকুমার চন্দ্র ঢালী (উড়োজাহাজ),শেখ ফরহাদ হোসেন ️ (টিউবওয়েল), মিলন মোহন মন্ডল (আইসক্রিম) ও মোঃ বাবুল শরিফ (বই)।এছাড়া মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪ প্রার্থী।
তারা হলেন, বর্তমান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান  লিপিকা ঢালী ️ (পদ্ম ফুল) অনিতা রানী মন্ডল ️ (ফুটবল),ইয়াসমিন বুশরা ️(কলস) ও ময়না বেগম ️(হাঁস)। উপজেলা নির্বাচন অফিসের তথ্য অনুযায়ী পাইকগাছা উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায়  মোট ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৩১ হাজার ৯৩৮জন। যার মধ্যে পুরুষ ১লাখ ১৬ হাজার ৮৭২ জন ও নারী ভোটারের সংখ্যা ১লাখ ১৫ হাজার ৬৭ জন। যার একটা বড় অংশ প্রায় ৭৬ হাজার ভোটার সনাতন ধর্মাবলম্বী।
এদিকে  নির্বাচন শতভাগ   সুষ্ঠু,অবাধ ও নিরপেক্ষ করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহেরা নাজনীন।
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

Daily Naba Bani

মিডিয়া তালিকাভুক্ত জাতীয় দৈনিক নববাণী পত্রিকার জন্য সকল জেলা উপজেলায় সংবাদ কর্মী আবশ্যকঃ- আগ্রহীরা আজই আবেদন করুন। মেইল: 24nababani@gmail.com
জনপ্রিয় সংবাদ

সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ভোগান্তিতে ৮ লক্ষাধিক মানুষ

আগামী ০৯ তারিখ পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন; দ্বিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা

আপডেট সময় ০৯:১২:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪
আগামী ৯ জুন উৎসব মূখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ৬ষ্ঠ  পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী ৬ প্রার্থীর দ্বিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা রয়েছে বলে সাধারণ ভোটাররা জানিয়েছে। মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক জেলা পরিষদ সদস্য শেখ কামরুল হাসান টিপু ও চিংড়ি মাছ প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আনন্দ মোহন বিশ্বাস এর সাথে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হলেও ক্লিন ইমেজের প্রার্থী হিসেবে শেষ মুহূর্তে আনন্দ বিশ্বাস এগিয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করছেন নির্বাচন বিশ্লেষকদের অনেকেই।
ঘূর্ণিঝড় রেমাল এর  কারণে স্থগিত হওয়া পাইকগাছা উপজেলা পরিষদের নির্বাচন আজ ৯ ই জুন রবিবার অনুষ্ঠিত হবে । এজন্য  শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাত থেকে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা বন্ধ হয়ে গেছে  ।ফলে শেষ মুহূর্তে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনায় সকাল থেকে গভীর রাত অবধী ব্যস্ত সময় পার করেছেন প্রার্থীরা। প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীরা যার যার অবস্থান থেকে জোর প্রচারনা চালিয়েছেন। ভোটারদের দিয়েছেন নানান প্রতিশ্রতি। তবে ভোটাররা বলছেন, সৎ, যোগ্য, পরোপকারী ও বিপদে যাকে কাছে পাবেন এবং পরিষদকে সুন্দর ভাবে পরিচালনা করতে পারেন এমন প্রার্থীকেই বিজয়ী করবেন বলে জানান তারা।  উপজেলা চেয়ারম্যান পদে অন্য প্রার্থীদের মধ্যে  আনারস প্রতিক নিয়ে আ’লীগ নেতা কৃষ্ণ পদ মন্ডল,দোয়াত কলম প্রতীক নিয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এডভোকেট শেখ আবুল কালাম আজাদ,  কাপ পিরিচ প্রতিক নিয়ে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীরমুক্তি যোদ্ধা এ্যাড. স ম বাবর আলীর পুত্র  স ম শিবলী নোমান রানা  ও হেলিকপ্টার প্রতিক নিয়ে  আসাদুল বিশ্বাস নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।   এদিকে নির্বাচন বিশ্লেষকরা মনে করছেন, জাতীয় নির্বাচনে প্রতীক মূল ফ্যাক্ট হলেও এবারের  উপজেলা পরিষদ  নির্বাচনে রাজনৈতিক পরিচয়ের পাশাপাশি ব্যক্তি ইমেজ বিশেষ গুরুত্ব বহন করবে। সেক্ষেত্রে নম্র ভদ্র ও ক্লিন ইমেজের প্রার্থীরা সাধারণ ভোটারদের কাছে গ্রহণ যোগ্যতা পাবে। এর পাশাপাশি ভোটার উপস্থিতির উপর ভোটের ফলাফল অনেকটা নির্ভর করবে বলে মনে করছেন নির্বাচন বিশ্লেষকরা। গুরুত্বপূর্ণ এ নির্বাচনে  উপজেলা  ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৯ জন প্রার্থী। তারা হলেন বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান   শিয়াবুদ্দীন ফিরোজ বুলু (তালা),সিরাজুল ইসলাম (মাইক),বজলুর রহমান ️(টিয়া পাখি),
স. ম. আব্দুল ওয়াহাব বাবলু (পালকি),এস. এম. হাবিবুর রহমান️ (চশমা),সুকুমার চন্দ্র ঢালী (উড়োজাহাজ),শেখ ফরহাদ হোসেন ️ (টিউবওয়েল), মিলন মোহন মন্ডল (আইসক্রিম) ও মোঃ বাবুল শরিফ (বই)।এছাড়া মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪ প্রার্থী।
তারা হলেন, বর্তমান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান  লিপিকা ঢালী ️ (পদ্ম ফুল) অনিতা রানী মন্ডল ️ (ফুটবল),ইয়াসমিন বুশরা ️(কলস) ও ময়না বেগম ️(হাঁস)। উপজেলা নির্বাচন অফিসের তথ্য অনুযায়ী পাইকগাছা উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায়  মোট ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৩১ হাজার ৯৩৮জন। যার মধ্যে পুরুষ ১লাখ ১৬ হাজার ৮৭২ জন ও নারী ভোটারের সংখ্যা ১লাখ ১৫ হাজার ৬৭ জন। যার একটা বড় অংশ প্রায় ৭৬ হাজার ভোটার সনাতন ধর্মাবলম্বী।
এদিকে  নির্বাচন শতভাগ   সুষ্ঠু,অবাধ ও নিরপেক্ষ করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহেরা নাজনীন।