ঢাকা ০১:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অভিজ্ঞতা নিতে রাজশাহী সিটি পরিদর্শনে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ

রাসিকের ব্যবস্থাপনায় দিনব্যাপী আয়োজিত প্রশিক্ষণ

উন্নয়ন, পরিচ্ছন্নতা ও সৌন্দর্য্য দেখে অভিজ্ঞতা নিতে রাজশাহী সিটি পরিদর্শন ও পারস্পরিক শিখন কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত কাউন্সিলরবৃন্দ। গতকাল মঙ্গলবার গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৭৬ জন কাউন্সিলরের একটি দল রাজশাহী সিটির নাগরিক সেবাসমূহ সহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্প পরিদর্শন করেন। বুধবার নগর ভবনে সিটি হল সভাকক্ষ্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়, জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট (এনআইএলজি) আয়োজিত সিটি কর্পোরেশন সম্পর্কিত প্রশিক্ষণ কোর্স পারস্পরিক শিখন কর্মসূচিতে অংশ নেন।

রাসিকের ব্যবস্থাপনায় দিনব্যাপী আয়োজিত প্রশিক্ষণ কোর্সে সভাপতিত্ব করেন রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এ.বি.এম শরীফ উদ্দিন। অনুষ্ঠানে রাজশাহী ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়ন ও সেবা কার্যক্রম বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। কোর্স পরিচালনায় সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের এনআইএলজির যুগ্ম-পরিচালক মোঃ শফিকুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম বলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্যসেবা, পরিচ্ছন্নতা, নান্দনিক সাজে সজ্জিত সবুজ নগরীর বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করেছি। এই নগরীতে পরিকল্পতভাবে উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়িত হচ্ছে। দুইদিনের রাজশাহী সফরে অর্জিত অভিজ্ঞতা নিয়ে গাজীপুরের উন্নয়নে অবদান রাখতে সক্ষম হব।

এনআইএলজির যুগ্ম-পরিচালক মোঃ শফিকুল ইসলাম বলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের কার্যক্রম দেখে মুগ্ধ হয়েছেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলররা। তারা পারস্পরিক শিখন কর্মসূচির মাধ্যমে অনেক কিছুই জানতে পেরেছি, দেখতে পেরেছে। তারা রাজশাহী সিটির অভিজ্ঞতা গাজীপুর সিটিতে কাজে লাগাতে সক্ষম হবে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের সচিব আব্দুল হান্নান, রাসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এফ.এ.এম আঞ্জুমান আরা বেগম, প্রধান প্রকৌশলী নুর ইসলাম তুষার, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মোঃ মামুন ডলার, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আবু সালেহ মোঃ নুর-ই-সাঈদ, চীফ কমিউনিটি ডেভেলমেন্ট অফিসার আজিজুর রহমান প্রমুখ।

প্রশিক্ষণ কোর্সে রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড ও অর্জন সম্পর্কিত সকল তথ্যাদি পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে উপস্থাপন করা হয়। অনুষ্ঠানে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ রাজশাহীর বিভিন্ন উন্নয়ন সেবা কার্যক্রম বিষয়ে জানতে চাইলে রাসিকের কর্মকর্তাবৃন্দ উত্তর প্রদান করেন।

সভাপতির বক্তব্যে ড. এ.বি.এম শরীফ উদ্দিন বলেন, মাননীয় রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের নেতৃত্বে এ নগরীর অভূতপূর্ব উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজশাহী মহানগরীর উন্নয়নে বৃহৎ প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। পরিচ্ছন্ন, সবুজ, ফুলের নগরী, স্বাস্থ্যসেবা, বায়ুদুষণ মুক্ত নগরী, আম, সিল্কের নগরী রাজশাহী। মাননীয় মেয়রের গতিশীল নেতৃত্বে প্রাচীন এ নগরী আজ আধুনিক নগরীতে পরিণত হয়েছে। মনোরম পরিবেশ উপভোগ করতে এ নগরীতে পর্যটকদের ভিড় প্রতিদিনই বাড়ছে। রাজশাহীকে নিয়ে আপনাদের উচ্ছসিত বক্তব্য তা প্রমান করে। রাজশাহীকে স্মার্ট নগরী রূপে গড়ে তুলতে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলতে দেশের বিভিন্ন নগরীর সাফল্যের বিষয়ে অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞান অর্জনে সরকারের এ উদ্যোগ ভাল ফল দেবে বলে আশা করেন তিনি।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত কাউন্সিলরবৃন্দকে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে রাসিকের বাজেট কাম হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম খান, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সাদিয়া আফরিন, নির্বাহী প্রকৌশলী নিলুফার ইয়াসমীন, পরিবেশ উন্নয়ন কর্মকর্তা সৈয়দ মাহমুদ-উল-ইসলাম, উপ-প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা সেলিম রেজা রঞ্জুসহ বিভিন্ন শাখার কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এরআগে ১১ ও ১২ সেপ্টেম্বর খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৪১জন কাউন্সিলর রাজশাহী সিটি পরিদর্শন করেন। #

আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

মোহনপুর উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আল মোমেন শাহ  গাবরুর নির্বাচনীয় বিশাল জনসভা অনুষ্ঠিত হয় 

অভিজ্ঞতা নিতে রাজশাহী সিটি পরিদর্শনে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ

আপডেট সময় ০৪:৩৪:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

উন্নয়ন, পরিচ্ছন্নতা ও সৌন্দর্য্য দেখে অভিজ্ঞতা নিতে রাজশাহী সিটি পরিদর্শন ও পারস্পরিক শিখন কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত কাউন্সিলরবৃন্দ। গতকাল মঙ্গলবার গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৭৬ জন কাউন্সিলরের একটি দল রাজশাহী সিটির নাগরিক সেবাসমূহ সহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্প পরিদর্শন করেন। বুধবার নগর ভবনে সিটি হল সভাকক্ষ্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়, জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট (এনআইএলজি) আয়োজিত সিটি কর্পোরেশন সম্পর্কিত প্রশিক্ষণ কোর্স পারস্পরিক শিখন কর্মসূচিতে অংশ নেন।

রাসিকের ব্যবস্থাপনায় দিনব্যাপী আয়োজিত প্রশিক্ষণ কোর্সে সভাপতিত্ব করেন রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এ.বি.এম শরীফ উদ্দিন। অনুষ্ঠানে রাজশাহী ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়ন ও সেবা কার্যক্রম বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। কোর্স পরিচালনায় সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের এনআইএলজির যুগ্ম-পরিচালক মোঃ শফিকুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম বলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্যসেবা, পরিচ্ছন্নতা, নান্দনিক সাজে সজ্জিত সবুজ নগরীর বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করেছি। এই নগরীতে পরিকল্পতভাবে উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়িত হচ্ছে। দুইদিনের রাজশাহী সফরে অর্জিত অভিজ্ঞতা নিয়ে গাজীপুরের উন্নয়নে অবদান রাখতে সক্ষম হব।

এনআইএলজির যুগ্ম-পরিচালক মোঃ শফিকুল ইসলাম বলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের কার্যক্রম দেখে মুগ্ধ হয়েছেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলররা। তারা পারস্পরিক শিখন কর্মসূচির মাধ্যমে অনেক কিছুই জানতে পেরেছি, দেখতে পেরেছে। তারা রাজশাহী সিটির অভিজ্ঞতা গাজীপুর সিটিতে কাজে লাগাতে সক্ষম হবে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের সচিব আব্দুল হান্নান, রাসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এফ.এ.এম আঞ্জুমান আরা বেগম, প্রধান প্রকৌশলী নুর ইসলাম তুষার, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মোঃ মামুন ডলার, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আবু সালেহ মোঃ নুর-ই-সাঈদ, চীফ কমিউনিটি ডেভেলমেন্ট অফিসার আজিজুর রহমান প্রমুখ।

প্রশিক্ষণ কোর্সে রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড ও অর্জন সম্পর্কিত সকল তথ্যাদি পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে উপস্থাপন করা হয়। অনুষ্ঠানে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ রাজশাহীর বিভিন্ন উন্নয়ন সেবা কার্যক্রম বিষয়ে জানতে চাইলে রাসিকের কর্মকর্তাবৃন্দ উত্তর প্রদান করেন।

সভাপতির বক্তব্যে ড. এ.বি.এম শরীফ উদ্দিন বলেন, মাননীয় রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের নেতৃত্বে এ নগরীর অভূতপূর্ব উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজশাহী মহানগরীর উন্নয়নে বৃহৎ প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। পরিচ্ছন্ন, সবুজ, ফুলের নগরী, স্বাস্থ্যসেবা, বায়ুদুষণ মুক্ত নগরী, আম, সিল্কের নগরী রাজশাহী। মাননীয় মেয়রের গতিশীল নেতৃত্বে প্রাচীন এ নগরী আজ আধুনিক নগরীতে পরিণত হয়েছে। মনোরম পরিবেশ উপভোগ করতে এ নগরীতে পর্যটকদের ভিড় প্রতিদিনই বাড়ছে। রাজশাহীকে নিয়ে আপনাদের উচ্ছসিত বক্তব্য তা প্রমান করে। রাজশাহীকে স্মার্ট নগরী রূপে গড়ে তুলতে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলতে দেশের বিভিন্ন নগরীর সাফল্যের বিষয়ে অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞান অর্জনে সরকারের এ উদ্যোগ ভাল ফল দেবে বলে আশা করেন তিনি।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত কাউন্সিলরবৃন্দকে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে রাসিকের বাজেট কাম হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম খান, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সাদিয়া আফরিন, নির্বাহী প্রকৌশলী নিলুফার ইয়াসমীন, পরিবেশ উন্নয়ন কর্মকর্তা সৈয়দ মাহমুদ-উল-ইসলাম, উপ-প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা সেলিম রেজা রঞ্জুসহ বিভিন্ন শাখার কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এরআগে ১১ ও ১২ সেপ্টেম্বর খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৪১জন কাউন্সিলর রাজশাহী সিটি পরিদর্শন করেন। #